পোশাক শিল্প কারখানার লাইসেন্স নবায়নের কাজ সহজ করা হবে

0
137

মতবিনিময় সভা

বিজিএমইএ’র আঞ্চলিক কার্যালয়-এর সম্মেলন কক্ষে গতকাল বেলা ৩টায় কল-কারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদপ্তর, চট্টগ্রাম এর নবনিযুক্ত উপ-মহাপরিদর্শক আবদুল্লাহ্্ আল সাকিব মুবাররাত এর সাথে বিজিএমইএ নেতৃবৃন্দের সাথে এক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। বিজিএমইএ’র প্রথম সহ-সভাপতি মোহাম্মদ আবদুস সালামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন বিজিএমইএ’র সহ-সভাপতি এ. এম. চৌধুরী সেলিম, পরিচালকবৃন্দ সর্বজনাব মোহাম্মদ মুসা, মোহাম্মদ আতিক, খন্দকার বেলায়েত হোসেন, এনামুল আজিজ চৌধুরী, প্রাক্তন পরিচালক ও লেবার অ্যান্ড ফায়ার বিষয়ক স্থায়ী কমিটির চেয়ারম্যান সাইফ উল্লাহ মনসুর, কো-চেয়ারম্যান মোহাম্মদ তসলিমসহ পোশাক শিল্পের মালিকবৃন্দ, কল-কারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদপ্তর, চট্টগ্রাম-এর এআইজি শিপন চৌধুরী, ইঞ্জিনিয়ার শরীফ আহমেদ আজাদ, ডা. বিশ্বজিৎ রায় সহ অন্যান্য কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
বিজিএমইএ’র প্রথম সহ-সভাপতি মোহাম্মদ আবদুস সালাম বলেন, বিশ্বব্যাপী চলমান করোনা সংক্রমণের প্রেক্ষিতে পোশাক শিল্প বর্তমানে অত্যন্ত সংকটময় পরিস্থিতি অতিক্রম করছে। তিনি বলেন, পোশাক শিল্প কর্তৃক প্রতিটি রপ্তানি চালানের বিপরীতে শ্রমিক কল্যাণে ফান্ডে ০.০৩% হারে জমা প্রদান করা হচ্ছে। উক্ত ফান্ড থেকে সংকটময় পরিস্থিতিতে চট্টগ্রামস্থ পোশাক শিল্প মালিকদের অস্তিত্ব রক্ষার্থে যাতে ঋণ হিসাবে নেওয়া যায় সে বিষয়ে ডিআইডি’র ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ। করোনাকালীন পরিস্থিতিতে যে সকল শ্রমিক চাকরিচ্যুত হয়েছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন কর্তৃক তাদেরকে কল-কারখানা অধিদপ্তরের মাধ্যমে ৩ মাসের বেতন-ভাতা প্রদানের জন্য শ্রতিশ্রুতি দিয়েছে। উক্ত বিষয়ে সংশ্লিষ্ট শ্রমিকরা যাতে সহজে সুবিধা পেতে পারে সে বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য তিনি অনুরোধ করেন। শ্রমিক অসন্তোষ নিরসনে সংশ্লিষ্ট সকলের সাথে আলোচনার মাধ্যমে দ্রুত সুরাহার লক্ষ্যে বিজিএমইএ ও ডাইফ যৌথভাবে কাজ করবে। তিনি আরো বলেন, চট্টগ্রাম কেন্দ্রিক চলমান উন্নয়ন কর্মকা- শেষে চট্টগ্রামে প্রচুর বিদেশি বিনিয়োগসহ ব্যবসা-বাণিজ্য বৃদ্ধি পাবে।
নব-নিযুক্ত উপ-মহাপরিদর্শক আবদুল্লাহ্্ আল সাকিব মুবাররাত বলেন, কারখানায় কোনো সমস্যা সৃষ্টি হলে তা দ্রুত যাচাই-বাছাই করে বিজিএমইএ’র সাথে আলোচনার মাধ্যমে দ্রুত সমাধানের উদ্যোগ নেয়া হবে। তিনি আরো বলেন, পোশাক শিল্প কারখানার লাইসেন্স নবায়নের ক্ষেত্রে কার্যক্রম সহজ করে দ্রুত পদক্ষেপ গ্রহণ হবে। বিজিএমইএ’র সহ-সভাপতি এ.এম. চৌধুরী সেলিম-এর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন বিজিএমইএ’র পরিচালক মোহাম্মদ মুসা, মোহাম্মদ আতিক, খন্দকার বেলায়েত হোসেন, এনামুল আজিজ চৌধুরী, লেবার ও ফায়ার বিষয়ক স্থায়ী কমিটি চট্টগ্রাম এর চেয়ারম্যান মোহাম্মদ সাইফ উল্লাহ্ মনসুর ও কমিটির সদস্য মীর ফজলে করিম, মো. আবদুর রহিম প্রমুখ। ডাইফ এর পক্ষে মতামত তুলে ধরেন এআইজি শিপিন চৌধুরী, ইঞ্জিনিয়রি শরীফ আহমেদ আজাদ, ডা. বিশ্বজিৎ রায়। মতবিনিময় শেষে সরকারের বৃক্ষরোপণ কর্মসূচির আওতায় বিজিএমইএ’র কার্যালয় প্রাঙ্গণে বৃক্ষরোপণ করা হয়। বিজ্ঞপ্তি