পৃথক দুর্ঘটনায় চারজনের মৃত্যু

0
151

নিজস্ব প্রতিনিধি, চকরিয়া, রামগড়, সীতাকু- ও দীঘিনালা :
পৃথক ঘটনায় বিভিন্নস্থানে চারজনের মৃত্যু হয়েছে।
চকরিয়ায় গাছ থেকে সুপারি পাড়তে গিয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে মো. সালাহ উদ্দিন (১০) নামে হেফজখানার ছাত্রের মৃত্যু হয়েছে। গতকাল দুপুর সাড়ে তিনটার দিকে উপজেলার সাহারবিল ইউনিয়নের মাইজঘোনা উত্তর পাড়ায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত ছাত্র সালাহ উদ্দিন ওই গ্রামের শফিকুল আলমের ছেলে ও স্থানীয় একটি হেফজখানার ছাত্র।
সালাহ উদ্দিনের ফুফাত ভাই আসিফুল ইসলাম বলেন, দুপুরে ভাত খেয়ে বাবার সাথে বিলে কাজ করতে যায় সালাহ উদ্দিন। পরে বাড়িতে আসার পথে প্রতিবেশী এক চাচার বাড়িতে সুপারি গাছে ওঠার জন্য ঘরের টিনের চালে উঠলে বিদ্যুতায়িত হয়ে ঘটনাস্থলেই মারা যায় সালাহউদ্দিন। পরে উদ্ধার করে চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
রামগড়
খাগড়াছড়ির রামগড় উপজেলার তৈছালা পাড়া এলাকায় পিকআপ ও সিএনজি চালিত অটোরিকশার মুখোমুখি সংঘর্ষে ঘটনাস্থলে ১ জন নিহত এবং ৫ জন গুরুতর আহত হয়েছেন। রোববার সন্ধ্যা ছয়টার দিকে রামগড় জালিয়াপাড়া সড়কের তৈছালাপাড়ার মৎস হ্যাচারির সামনে এই দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত নারী জগত মালা ত্রিপুরা (৩০)মাটিরাঙ্গা উপজেলার আলুটিলা এলাকার সূর্য ত্রিপুরার স্ত্রী। আহতরা হলেন তামিম মাহমুদ(৩০), মোহাম্মদ সবুজ (৩০), চেইংদ্যা মারমা(৪০),হাফছড়ি মোহাম্মদ তারেক (১৫)। আহত একজনের পরিচয় এখনো পাওয়া যায়নি। আহতদের রামগড় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়। এর মধ্যে মোহাম্মদ সবুজসহ অজ্ঞাত একজনকে আশংকাজনক অবস্থায় চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।
রামগড় থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ শামসুজ্জামান জানান, দুর্ঘটনাকবলিত গাড়ি দুটি জব্দ করা হয়েছে এবং মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে জানান।
সীতাকু-
সীতাকু-ে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে মো. আবুল কাসেম (৫৫) নামে এক কৃষকের মৃত্যু হয়েছে। গতকাল রোববার দুপুরে উপজেলার বাড়বকু- নতুন পাড়া এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত কৃষক এই এলাকার মৃত গোলালের রহমানের পুত্র।
জানা যায়, গতকাল সকালে সীতাকু- মহিলা কলেজের প্রফেসর মো. মহিউদ্দিনের মালিকানাধীন পুকুরে কচুরিপানা পরিষ্কার করছিলেন কাসেম। কাজের প্রায় ২ ঘণ্টা পর আগে থেকে পুকুরে পড়ে থাকা বিদ্যুতের একটি তারে স্পর্শ হয় এবং ঘটনাস্থলে মারা যান। এরপর স্থানীয়রা বিদ্যুতের লাইন বন্ধ করে নিহত কৃষককে উদ্ধার এবং মডেল থানা পুলিশকে অবগত করেন।
এ বিষয়ে জানতে চাইলে সীতাকু- মডেল থানার ওসি মো. ফিরোজ হোসেন মোল্লা ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেন।
দীঘিনালা
দীঘিনালায় পানিতে ডুবে এক স্কুলছাত্রের হয়েছে। শিশুর নাম ফাহিম হাসান (৮)। সে উপজেলার ১ নম্বর কবাখালী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণির ছাত্র এবং দক্ষিণ মিলনপুর গ্রামের মোহাম্মদ আলীর ছেলে।
গতকাল রোববার সকালে কবাখালী জালালাবাদ জামে মসজিদের পাশে খেলার সময় এ ঘটনা ঘটে। জানা যায়, রোববার সকালে কবাখালী জালালাবাদ জামে মসজিদের পুকুরের পাশে খেলার সময় সাথে থাকা টায়ার পানিতে পড়ে যায়, ওই টায়ার তোলার চেষ্টা করে সে। এক পর্যায়ে সে পুকুরের পানিতে তলিয়ে যায়। পরে তাকে উদ্ধার করে দীঘিনালা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।
দীঘিনালা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) উত্তম চন্দ্র দেব পানিতে ডুবে এক শিশু মৃত্যুর ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।