পাকিস্তানে ম্যাচ-ফিক্সিংয়ের সাজা জেল!

0
210

সুপ্রভাত ক্রীড়া ডেস্ক :
ম্যাচ-ফিক্সিং ও স্পট-ফিক্সিং মামলাকে ফৌজদারি অপরাধ হিসেবে গণ্য করার অনুমোদন দিল পাকিস্তান। পিসিবি-র দুর্নীতিদমন আইন সংশোধন করে বুধবার তাতে ফৌজদারি অপরাধে সিলমোহর দিলেন পাক প্রধানমন্ত্রী তথা পাক ক্রিকেট বোর্ডের পেট্রন-ইন-চিফ ইমরান খান।
পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড সুত্রে জানা গিয়েছে, চলতি সপ্তাহে পিসিবি চেয়ারম্যান এহসান মানির সঙ্গে বৈঠকে এ নিয়ে সবুজ সংকেত দিয়েছিলেন বিশ্বকাপজয়ী পাক অধিনায়ক। এই বৈঠকেই করোনা মহামারীর মধ্যেও পাকিস্তান ক্রিকেট দলের ইংল্যান্ড সফরের ছাড়পত্র দেওয়া হয়েছিল।
সূত্র থেকে আরও জানা গিয়েছে, ‘ইমরান নতুন আইনের খসড়া অনুলিপি সমর্থন করেছিলেন এবং মনিকে আইন ও অন্যান্য সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় দ্বারা সাফ করার পরামর্শ দিয়েছিলেন যাতে এটি সংসদে উপস্থাপিত করা যায়। তারপর এটি আইন হতে পারে।’
এটি আইনে পরিণত হলে ম্যাচ-ফিক্সিং এবং স্পট-ফিক্সিং অভিযুক্ত ক্রিকেটার দোষী প্রমাণিত হলে তাকে জেলে যেতে হবে। নতুন কোডের অধীনে বোর্ড ম্যাচ-ফিক্সিং এবং স্পট-ফিক্সিংকে অপরাধীকরণ এবং জেলে থাকা অন্য অপরাধীদের মতো শাস্তি নির্দিষ্ট করার ইচ্ছা পোষণ করেছেন।
সুত্রটি আরও জানিয়েছে, ‘নতুন আইনগুলি পিসিবি-র দুর্নীতিদমন ও সুরক্ষা ইউনিটকে কেবল খেলোয়াড়/ কর্মকর্তা/ ব্যক্তিদের অর্থের ট্রেইল এবং সম্পদের তদন্ত করার ক্ষমতা দেয় না। প্রয়োজনে অভিযান পরিচালনা এবং ফৌজদারি মামলা দায়ের করার ক্ষমতাও দেওয়া হবে।’
খবর : কলকাতাটোয়েন্টিফোর’র।