পটিয়া-দোহাজারী রেললাইনে যুক্ত হচ্ছে ডেমু ট্রেন

0
147

আজ উদ্বোধন করবেন রেলমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিনিধি,পটিয়া :
চট্টগ্রাম-পটিয়া-দোহাজারী রেললাইনে যুক্ত করা হচ্ছে একটি ডেমু ট্রেন। আজ শনিবার দুপুরে পটিয়ায় এ ডেমু ট্রেন আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করবেন রেলমন্ত্রী মো. নুরুল ইসলাম সুজন। এর আগে তিনি সকাল ১১টায় দোহাজারী স্টেশনেও এ ডেমু ট্রেন উদ্বোধন করবেন। ট্রেনটি প্রতিদিন ভোর সাড়ে ৫টায় চট্টগ্রাম থেকে পটিয়ার উদ্দেশ্যে রওনা হবে। যা সকাল ৬টা ৪০ মিনিটে পটিয়া স্টেশনে পৌঁছাবে এবং সকাল সাড়ে ৭টায় পুনরায় পটিয়া ছেড়ে যাবে। সকাল ৯টা ৫ মিনিটে চট্টগ্রাম রেলওয়ে স্টেশনে পৌঁছাবে। দ্বিতীয় ট্রিপ বিকেল ৫টায় চট্টগ্রাম থেকে দোহাজারীর উদ্দেশ্যে যাত্রা করবে। এ ট্রেনটি সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় দোহাজারী পৌঁছাবে এবং দোহাজারী থেকে চট্টগ্রামের উদ্দেশ্যে ছেড়ে যাবে সন্ধ্যা ৭টা ৪০ মিনিটে। যা রাত ১০টা ৪০ মিনিটে চট্টগ্রাম রেলওয়ে স্টেশনে পৌঁছাবে। এতদিন চট্টগ্রাম-দোহাজারী লাইনে দুই জোড়া যাত্রীবাহী ট্রেন চলাচল করছে। যাত্রীবাহী ট্রেন ছাড়াও একটি পিকিং পাওয়ার প্ল্যান্টের জন্য ফার্নেস অয়েলবাহী ওয়াগন নিয়মিত চলাচল করে।
বিভিন্ন সূত্রে জানা গেছে, দক্ষিণ চট্টগ্রামের মানুষের জন্য বৃটিশ আমলে চট্টগ্রাম থেকে দোহাজারী পর্যন্ত ট্রেন চালু করা হয়। এক সময় যাত্রীবাহী এই ট্রেনের চাহিদা থাকলেও বিএনপি সরকারের সময়ে দোহাজারী রুটে ট্রেনের লোকসান দেখিয়ে ট্রেন চলাচল বন্ধ করে দেওয়া হয়। পরবর্তীতে আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় এলে পুনরায় যাত্রীবাহী ট্রেন সচল করা হয়। পর্যটন নগরী কক্সবাজারে যাওয়ার সুবিধার্থে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দোহাজারী থেকে কক্সবাজার ও কক্সবাজার থেকে ঘুমধুম পর্যন্ত রেললাইন তৈরির প্রকল্প গ্রহণ করে। বর্তমানে রেল লাইন নির্মাণ প্রকল্পের কাজ চলমান রয়েছে। চট্টগ্রাম-দোহাজারী রুটের কালুরঘাট ব্রিজের পর থেকে গুমদন্ডী, বেঙ্গুরা, ধলঘাট, খানমোহনা, পটিয়া, চক্রশালা, খরনা, খাঁনহাট, কাঞ্চননগর, হাশিমপুর ও দোহাজারী স্টেশন এলাকায় রেলওয়ের জায়গায় অসংখ্য অবৈধ স্থাপনা গড়ে ওঠেছে। যাত্রীদের দাবির প্রেক্ষিতে দোহাজারী লাইনে ১টি ডেমু ট্রেন আজ থেকে চালু হচ্ছে।
পটিয়া রেলস্টেশনের সহকারী স্টেশন মাস্টার শামসুন্নাহার বেগম বলেছেন, পরিবেশ বান্ধব ও যাত্রী সেবামূলক গণপরিবহন মাধ্যম হিসেবে চট্টগ্রাম- দোহাজারী লাইনে নতুন করে ডেমু ট্রেন চালু করা হচ্ছে।