পটিয়ায় ভাঙা হচ্ছে সেই হেলে পড়া ভবন

0
113
sdr

নিজস্ব প্রতিনিধি, পটিয়া :
পটিয়া পৌর সদরে দুবাই প্রবাসীর সেই হেলে পড়া ৬ তলা ভবন ভেঙে ফেলে হচ্ছে। মঙ্গলবার বিকেলে ভ্রাম্যমাণ আদালতের এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোহাম্মদ ইনামুল হাছানের উপস্থিতিতে ভবনের ঝুঁকিপূর্ণ অংশ ভেঙে ফেলার কাজ শুরু করেন পৌর কর্তৃপক্ষ।
এর আগে ভবনের মালিককে পৌর কর্তৃপক্ষ একটি চিঠি দিয়ে সতর্ক করেন। ভবন মালিক নিজ উদ্যোগে ঝুঁকিপূর্ণ ভবনের অংশ না ভাঙার কারণে অবশেষে ভ্রাম্যমাণ আদালতের ম্যাজিস্ট্রেটের সহযোগিতায় পৌর কর্তৃপক্ষ ভাঙার কাজ শুরু করেন। ওই ভবনের মালিক দুবাই প্রবাসী ক্বাযী মো. ছাদেক। ৬ তলা বিশিষ্ট ভবনটি ৫ বছর আগে পাইলিং না করেই শুধুমাত্র চুয়েটের এক্সপার্ট ও ইঞ্জিনিয়ারের মাধ্যমে নির্মাণ করে। ওই ভবনের পাশে রয়েছে একটি পুকুর।
জানা গেছে, পৌরসভার ২ নম্বর ওয়ার্ডের সুচক্রদণ্ডী গ্রামের মুন্সেফ বাজারের পিছনে দুবাই প্রবাসী ক্বাযী ছাদেক ৫ বছর আগে ৬ তলা বিশিষ্ট একটি ভবন নির্মাণ করেন। হেলে পড়ার আগে ওই ভবনের ১৭ প্ল্যাটের মধ্যে ১৬ প্ল্যাটে ভাড়াটিয়া থাকতেন। এর মধ্যে ভবনের উপরের অংশের পঞ্চম তলা পর্যন্ত হেলে পড়ে। বিষয়টি পাশের একটি ভবনের পক্ষ থেকে পটিয়া পৌরসভার মেয়র অধ্যাপক হারুনুর রশিদকে জানানো হয়।
পটিয়া পৌরসভার প্রকৌশলী মিজানুর রহমান খন্দকার জানিয়েছেন, ৬ তলা ভবন হেলে পড়লে পৌর কর্তৃপক্ষ ভবন মালিককে চিঠি দিয়ে সতর্ক করে এবং তা ভেঙে ফেলতে বলা হয়। কিন্তু তারা অবহেলা করেছে। যার কারণে ভ্রাম্যমাণ আদালতের ম্যাজিস্ট্রেটের সহযোগিতায় ভবনের ঝুঁকিপুর্ণ অংশ ভেঙে ফেলার কাজ শুরু করেছে।
এসময় উপস্থিত ছিলেন, পৌরসভার মেয়র অধ্যাপক হারুনুর রশিদ, কাউন্সিলর ইঞ্জিনিয়ার রূপক কুমার সেন, পৌরসভা আওয়ামী লীগ নেতা নাজিম উদ্দিন।