পটিয়ায় বিএনপির প্রার্থী নুরুল ইসলাম

0
178

পৌরসভা নির্বাচন

নিজস্ব প্রতিনিধি, পটিয়া :
পটিয়ায় আওয়ামী লীগের পর বিএনপিতে পৌরসভা বিএনপির আহ্বায়ক ও সাবেক চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম সওদাগর চমক দেখিয়েছেন। গত পৌরসভা নির্বাচনের বিএনপির মনোনীত প্রার্থী তৌহিদুল আলমকে বাদ দিয়ে নুরুল ইসলাম সওদাগরকে ধানের শীষ প্রতীক দেওয়ায় দলের কিছু নেতাকর্মী শুক্রবার বিক্ষোভ করেছে। তবে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী আইয়ুব বাবুল দলীয় মনোনয়ন নিয়ে পটিয়ায় ফিরলে তৃণমূল নেতাকর্মীরা তাকে সংবর্ধনা দেন।
জানা গেছে, আগামী ১৪ ফেব্রুয়ারি চতুর্থ ধাপের পটিয়া পৌরসভা নির্বাচন। এ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ, বিএনপি, জাতীয় পার্টির দলীয় প্রার্থীরা মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন। দুইবারের পৌর মেয়র ও উপজেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক হারুনুর রশিদের পরিবর্তে মনোনয়ন বোর্ড আওয়ামী লীগ নেতা আইয়ুব বাবুলকে নৌকার টিকিট দিয়ে চমক দেখান। একইভাবে গত পৌরসভা নির্বাচনের বিএনপির প্রার্থী তৌহিদুল আলমকে বাদ দিয়ে পৌরসভার সাবেক চেয়ারম্যান বিএনপি নেতা নুরুল ইসলাম সওদাগরকে মনোনয়ন দিয়ে তারাও চমক দেখান। মনোনয়নের বিরোধিতা করে শুক্রবার সকালে তৌহিদুল ইসলামের কিছু অনুসারী দলীয় কার্যালয়ের সামনে বিক্ষোভ করেন।
দলের নির্ভরযোগ্য একটি সূত্র জানান, বিএনপি নেতা নুরুল ইসলাম সওদাগর ও তৌহিদুল আলম দুজনেই পটিয়ার সাবেক এমপি গাজী মো. শাহজাহান জুয়েলের অনুসারী। জুয়েল গত জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন না পেয়ে হতাশ হন। এর পর থেকে তিনি (জুয়েল) রাজনীতির মাঠে নিস্ক্রিয় হন। এ সুযোগ নিয়ে দক্ষিণ জেলা বিএনপি নেতা ও পটিয়া উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক এনামুল হক এনাম একে একে জুয়েলের অনুসারীদের টেনে নেন। এর মধ্যে পৌরসভা বিএনপি নেতা নুরুল ইসলাম ও তৌহিদুল আলমও রয়েছে। প্রথমবারের মত ইভিএমের মাধ্যমে পটিয়া পৌরসভার নির্বাচনের ভোটগ্রহণ করা হবে। আওয়ামী লীগ ও বিএনপির যোগ্য প্রার্থী মনোনয়নের ফলে আগামীর পৌরসভা নির্বাচন হবে হাট্টাহাট্টি লড়াই।
পটিয়া পৌরসভার সাবেক চেয়ারম্যান ও ধানের শীষ প্রতীকের প্রার্থী নুরুল ইসলাম সওদাগর জানিয়েছেন, জনগণের ভোটে তিনি এর আগে পৌরসভার চেয়ারম্যান, ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান ও কমিশনার নির্বাচিত হন। আগামী ১৪ ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিতব্য পৌরসভা নির্বাচনে তাকে ধানের শীষের প্রার্থী করা হয়েছে। বিষয়টি দলের মনোনয়ন বোর্ড থেকে ফোনে জানানো হয়েছে। মনোনয়নের বিষয়ে গুটিকয়েক ব্যক্তি যে বিরোধিতা করছে তারা নির্বাচনের আগে ঠিক হয়ে যাবে।
পটিয়া উপজেলা বিএনপির সদস্য সচিব খোরশেদ আলম জানিয়েছেন, আগামী পৌরসভা নির্বাচনে ধানের শীষের প্রার্থী যাকে দেবেন তার পক্ষে আমি কাজ করবো।