পটিয়ায় কিরিচের কোপে নারীর দুই আঙ্গুল বিচ্ছিন্ন

0
142

নিজস্ব প্রতিনিধি, পটিয়া :
পটিয়া উপজেলার হাবিলাসদ্বীপ ইউনিয়নে দুই পক্ষের মারামারিতে কিরিচের কোপে নারীর দুই আঙ্গুল বিচ্ছিন্ন হয়েছে। আহত পারভীন আকতার (২৯) উপজেলার দক্ষিণ হুলাইন গ্রামের মৃত মো. ইসহাকের কন্যা। ১৯ ডিসেম্বর সকাল ৯টায় এ ঘটনা ঘটে।
পারভীনকে পটিয়া হাসপাতাল থেকে পরে চমেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। নারীর আঙ্গুল বিচ্ছিন্ন হওয়ার ঘটনায় থানায় একটি মামলা করা হয়েছে। একই মারামারিতে প্রতিপক্ষ পিপলুও জখম হয়।
জানা গেছে, উপজেলার দক্ষিণ হুলাইন গ্রামের মৃত মো. ইসহাকের পরিবারের সঙ্গে একই এলাকার সামশুল আলমের পরিবারের মধ্যে বিরোধ চলে আসছিল। দুই পক্ষের বিরোধের জের ধরে শনিবার মারামারির ঘটনা ঘটে। এক পর্যায়ে রহিম উদ্দিন পারভেজ প্রকাশ পিপলু ও তার লোকজন কিরিচ দিয়ে কুপিয়ে জখম করে। কিরিচের কোপে পারভীনের দুইটি আঙ্গুল পড়ে যায়। মৃত মো. ইসহাকের স্ত্রী বুলবুল আকতার বাদি হয়ে পটিয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।
মামলার বাদি বুলবুল আকতার জানিয়েছেন, দুই পক্ষের বিরোধের জের ধরে যুবলীগের পিপলু সন্ত্রাসী কায়দায় একটি কিরিচ নিয়ে তাদের উপর হামলা চালিয়েছে। এতে পারভিন আকতারের হাতের আঙ্গুল কেটে গেছে।
পটিয়া থানার ওসি রেজাউল করিম মজুমদার জানিয়েছেন, দুই পক্ষের বিরোধের জের ধরে মারামারির ঘটনা ঘটেছে। কিরিচের কোপে এক মহিলার হাতের আঙ্গুল পড়ে গেছে।