নির্বাসন কাটলো শ্রীশান্থের

0
154

সুপ্রভাত ক্রীড়া ডেস্ক :
দীর্ঘ প্রতীক্ষার অবসান। অবশেষে শেষ হল শান্তাকুমারন শ্রীশান্থের সাত বছরের নির্বাসন। এর আগে আইপিএল-এ স্পট ফিক্সিং করে, ২০১৩ সালে ক্রিকেট থেকে নির্বাসনের মুখে পড়েছিলেন ভারতীয় ক্রিকেটার শ্রীশান্থ।রোববার শেষ হল তারই মেয়াদ। ফলে বাইশ গজে ফিরতে আর কোনও বাধা রইল না তার।
এই প্রসঙ্গে শ্রীশান্থ জানান, ‘এই দিনটির জন্যেই দীর্ঘদিন ধরে অপেক্ষা করেছি। আমার পুরো পরিবারের কাছেই আজ স্বস্তির দিন। শাস্তি থেকে মুক্তি পেলাম। নিজেকে আজ স্বাধীন মনে হচ্ছে। ক্রিকেট মাঠে ফিরতে পারা নিয়ে কোনও বাধা রইল না, এটা ভেবেই দারুণ স্বস্তি ও উচ্ছ্বসিত।’’
এর আগে ২০১৩ সালে স্পট ফিক্সিংয়ের অভিযোগে রাজস্থান রয়্যালস দলে শ্রীশান্থ এবং আরও দুই সতীর্থকে গ্রেফতার করেছিল পুলিশ। এই ঘটনার জেরে শ্রীশান্থকে আজীবন ক্রিকেট থেকে নির্বাসন করেছিল বিসিসিআই। এরপর এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে শ্রীশান্থে আইনি লড়াই শুরু করেন। ২০১৫ সালে দিল্লি আদালত এরপর তাকে ‘নির্দোষ’ ঘোষণা করে। এরপর ২০১৮ সালে কেরল হাইকোর্ট বিসিসিআইকে আজীবন নির্বাসনের সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার করার নির্দেশ দেয়। পরের বছর একই মামলায় সুপ্রিম কোর্ট শ্রীশান্থকে ‘দোষী’ চিহ্নিত করলেও বিসিসিআই-কে শাস্তি কমানোর জন্য নির্দেশ দেয়। আর শীর্ষ আদালতের নির্দেশেই শ্রীশান্থের শাস্তির মেয়াদ কমে সাত বছরে নেমে আসে।
ইতিমধ্যে ৩৭ বছরের ক্রিকেটার ট্রেনিংও শুরু করে দিয়েছেন। তাকে দলে নিতে চাইছে কেরালা রঞ্জি দলও। তবে করোনার কারণে চলতি মরশুমে আর হয়তো মাঠে নামতে পারবেন না তিনি। কারণ বর্তমান পরিস্থিতিতে বোর্ড ঘরোয়া মরশুম শুরু করে ক্রিকেটারদের নিয়ে কোনওরকম ঝুঁকি নিতে চাইছে না। খবর : সংবাদপ্রতিদিন’র।