নগরে নির্বাচনী সহিংসতায় প্রথম মৃত্যু

0
137

সুপ্রভাত ডেস্ক :

পাঠানটুলি ওয়ার্ডে আওয়ামী লীগ সমর্থিত ও বিদ্রোহী কাউন্সিলর প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষে একজন নিহত হয়েছেন। গুলিবিদ্ধ অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন আরো ২জন। মঙ্গলবার রাত ৮টার দিকে মগপুকুর পাড় এলাকায় এই ঘটনা ঘটেছে বলে জানিয়েছেন ডবলমুরিং থানা পুলিশ ও স্থানীয় প্রত্যক্ষদর্শীরা। নিহতের নাম আজগর আলী বাবুল (৫৫)।

ঘটনার পর প্রতিপক্ষের বিক্ষুদ্ধ কর্মী-সমর্থকদের তোপের মুখে বিদ্রোহী কাউন্সিলর প্রার্থী মো. আবদুল কাদেরসহ তার অনুসারীরা মগপুকুর পাড়ার আজিম ম্যানসনে ঢুকে পড়েন। বিক্ষুদ্ধ কর্মী-সমর্থকরা ওই ভবন ঘিরে রাখে। এছাড়া কাদেরের পোস্টারে আগুন ধরিয়ে দেয়।

পরে পুলিশ এসে ভবনের চারদিকে অবস্থান নেয়। রাত ১২টা ২০ মিনিটে ভবনের বিভিন্ন ফ্লোরে অভিযান চালিয়ে প্রার্থী কাদেরসহ ২৬ জনকে গ্রেপ্তার করে।
এই ব্যাপারে ডবলমুরিং থানার ওসি সদীপ কুমার দাশ জানান, মগপুকুর পাড়স্থ আজিম ম্যানসন নামক একটি ভবন থেকে কাউন্সিলর প্রার্থী আবদুল কাদেরসহ ২৬ জনকে আটক করা হয়েছে। এদের মধ্যে ঘটনায় সম্পৃক্ত কারা আছেন তা যাচাই-বাছাই করে দেখা হবে। পরে তাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হবে।
সিএমপির উপ-পুলিশ কমিশনার ফারুক উল হক  জানান, পাঠানটুলি ওয়ার্ডের আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী নজরুল ইসলাম বাহাদুর এবং বিদ্রোহী আবদুল কাদেরের সমর্থকদের মধ্যে সন্ধ্যা সোয়া ৭টার দিকে সংঘর্ষ ও গোলাগুলি শুরু হয়। এক পর্যায়ে দুজন গুলিবিদ্ধ হন। একজন মারা যান।