দেশে চলছে নীরব দুর্ভিক্ষ : শাহাদাত

0
108

পণ্যের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে বিএনপির সমাবেশ

মহানগর বিএনপির আহ্বায়ক ডা. শাহাদাত হোসেন বলেছেন, করোনা ভাইরাস সংক্রমণের এই ক্রান্তিকালে মানুষের নিত্যপ্রয়োজনীয় চাল, ডাল, তেল, মুরগিসহ খাদ্যসামগ্রীর দাম সীমাহীন বেড়েছে। অসহায়, হতদরিদ্র এবং দিনমজুর মানুষেরা অতি কষ্টে জীবনযাপন করছে। মুনাফালোভী ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে সরকারের উদাসীনতার কারণে তারা দিন দিন বেপরোয়া হয়ে উঠেছে। সরকারের কতিপয় মন্ত্রী-এমপি তাদের ব্যবসায়িক স্বার্থে বাজারকে অস্থিতিশীল করার পেছনে ইন্ধন দিচ্ছে। তাই দেশে এখন নীরব দুর্ভিক্ষ চলছে। এক ভয়ঙ্কর অনিশ্চয়তা ঘিরে ফেলেছে জনজীবনকে।
গতকাল সোমবার বিকালে নাসিমন ভবন দলীয় কার্যালয় মাঠে নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের অস্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে মহানগর বিএনপির প্রতিবাদ সমাবেশে সভাপতির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
ডা. শাহাদাত আরও বলেন, করোনা এখন আবারো ভয়ঙ্কর রূপ নিচ্ছে। টিকা দেওয়ার পরও মানুষ আক্রান্ত হচ্ছে। সময়মত কার্যকর পদক্ষেপ না নেয়ার মাশুল হিসাবে করোনা দ্বিতীয় ধাপ অতিক্রম করছি আমরা। সামনে আরও সতর্ক না হলে সেটা আর সামাল দেয়া যাবে না। অকল্পনীয় পরিণতি বরণ করতে হবে। সামাজিক দূরত্ব বজায় না রাখলে ভয়াবহ পরিস্থিতির সৃষ্টি হবে।
মহানগর বিএনপির সদস্যসচিব আবুল হাশেম বক্কর বলেন, রোজা শুরুর আগে থেকেই বাজার অস্থিতিশীল করেছে মুনাফাশিকারি চক্র। তারা নানা ভিত্তিহীন অজুহাতে পণ্যের দাম বাড়িয়ে মানুষের পকেট কাটছে। বাজারে মুনাফা শিকারিদের অপতৎপরতা চলছে নানা কৌশলে। এ কারণে দুর্ভোগ নেমে আসছে স্বল্প আয়ের মানুষদের জীবনে। করোনাকালে আয়ের পথ রুদ্ধ হয়ে এমনিতেই সাধারণ মানুষের জীবনযাত্রা করুণ হয়ে উঠেছে, তার সাথে বাজারে মুনাফা শিকারিদের অপতৎপরতা অব্যাহত থাকলে সামনের পরিস্থিতি আরো দুর্বিষহ হবে। তিনি বাজারে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের মূল্যবৃদ্ধিকারী অতি মুনাফালোভী ব্যবসায়ীদের শাস্তির আওতায় এনে দ্রব্যমূল্যের লাগাম টেনে ধরার আহ্বান জানান।
মহানগর বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক ইয়াছিন চৌধুরী লিটনের পরিচালনায় উপস্থিত ছিলেন মহানগর বিএনপির সদস্য জয়নাল আবেদিন জিয়া, অধ্যাপক নুরুল আলম রাজু, মো. কামরুল ইসলাম, মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি এইচ এম রাশেদ খান, সাধারণ সম্পাদক বেলায়েত হোসেন বুলু, মামুনুল ইসলাম হুমায়ুন প্রমুখ। বিজ্ঞপ্তি