থানচিতে নিখোঁজ পর্যটকের মরদেহ উদ্ধার

0
197

সংবাদদাতা, বান্দরবান

থানচির নাফা খুম থেকে ফেরার পথে খালের পানির স্রোতে ভেসে যাওয়ার ২৪ ঘণ্টা পর নিখোঁজ ঢাকার পর্যটক কাজী জাকারুল ইসলাম কাননের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

থানচি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাইফুদ্দিন আনোয়ার জানান, শনিবার সইগংয়ান পয়েন্টের যে স্থানে কানন ডুবে গিয়ে নিখোঁজ হয়েছেন, রবিবার প্রায় একই সময়ে একই স্থান থেকে স্থানীয়দের সহায়তায় বিজিবি এবং পুলিশ সদস্যরা তার মরদেহ উদ্ধার করে। ওসি জানান, উদ্ধারের পর মরদেহ তার অভিভাবকদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

কাননের সাথে ঢাকা হতে আসা মোহাম্মদুর রহমান ৩০ ও তাঁর স্ত্রী সিদরাতুল মুনতাহা জানান, শনিবার সকালে নাফাখুম পর্যটনকেন্দ্রের কাছাকাছি শিমন ত্রিপুরার কটেজ হতে রেমাক্রী বাজার ফেরার পথে রেমাক্রী খালে সইগংয়ান নামক স্থানে খাল পারাপারের সময় তারা দুজন পা পিছলে খালে পড়ে যান। এ সময় কানন তাদের উদ্ধার করে তীরে তুলে দেওয়ার পরপরই তিনি নিজেই খালের পানির স্রোতে ভেসে নিখোঁজ হন। ঘটনাটি তাদের চোখের সামনেই ঘটে।

সূত্র জানায়, কাজী জাকারুল ইসলাম কাননের পিতা কাজী জহিরুল ইসলাম ও মা সালমা বেগম দুজনই বিশিষ্ট চক্ষু বিশেষজ্ঞ। ঢাকার উত্তরায় তারা বসবাস করেন।