তিন পার্বত্য জেলায় পর্যটনকেন্দ্র বন্ধ ঘোষণা

0
83

১৪ এপ্রিল পর্যন্ত চট্টগ্রাম চিড়িয়াখানা বন্ধ ঘোষণা

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাঙামাটি, খাগড়াছড়ি ও বান্দরবান <
করোনা সংক্রমণ রোধে রাঙামাটি, খাগড়াছড়ি ও বান্দরবানের সকল পর্যটনকেন্দ্র দুই সপ্তাহের জন্য বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। এ তিন জেলায় জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে আয়োজিত সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।
রাঙামাটি থেকে নিজস্ব প্রতিবেদক জানান, করোনা সংক্রমণ রোধে ফের দুই সপ্তাহের জন্য সাজেকসহ পার্বত্য জেলা রাঙামাটির সকল পর্যটনকেন্দ্র বন্ধ ঘোষণা করে আরো বেশ কিছু নির্দেশনা জারি করেছে রাঙামাটি জেলা প্রশাসন।
বুধবার বিকালে রাঙামাটি জেলা প্রশাসক সম্মেলন কক্ষে জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মিজানুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত ‘কোভিড সংক্রমণে করণীয় নির্ধারণে’ আয়োজিত জরুরি সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। সভায় দুই সপ্তাহের জন্য অন্তর্বর্তীকালীন এই সিদ্ধান্ত পরিস্থিতি বিবেচনায় বাড়তে পারে বলেও আভাস দেয়া হয়।
একইসাথে এ সভায় প্রতিদিন রাত আটটায় জেলার সকল দোকানপাট, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান মার্কেট বন্ধ, গণপরিবহনে সিট ফাঁকা রেখে যাত্রী পরিবহন, হোটেল মোটেলে অর্ধেক টেবিল চেয়ার তুলে রেখে ভোক্তাদের সেবা প্রদান, আবাসিক হোটেল বন্ধ রাখার নির্দেশনা জারি করা হয়।
সভায় সিভিল সার্জন ডা. বিপাশ খীসা, অতিরিত্ত পুলিশ সুপার তাপস রঞ্জন ঘোষ, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান শহীদুজ্জামান রোমান উপস্থিত ছিলেন।
এদিকে, আমাদের বান্দরবান প্রতিবেদক জানান, করোনা সংক্রমণ রোধে বান্দরবানে সব ধরনের পর্যটন স্পট গুলো বন্ধ ঘোষণা করেছে প্রশাসন। গতকাল বুধবার দুপুরে জেলা প্রশাসক ইয়াছমিন পারভীন তিবরিজির সভাপতিত্বে করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলায় করণীয় শীর্ষক সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।
সভায় জানানো হয় ১ এপ্রিল থেকে পরবর্তী দুই সপ্তাহের জন্য সরকারি বেসরকারি সব ধরনের পর্যটন কেন্দ্রগুলো ভ্রমণপিপাসুদের জন্য বন্ধ থাকবে। সভায় স্বাস্থ্য বিভাগ, আইনশৃঙ্খলা বাহিনী, আবাসিক হোটেল, রেস্টুরেন্ট মালিক সমিতি, সরকারি-বেসরকারি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।
বান্দরবান আবাসিক হোটেল মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম বলেন, করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলা করণীয় সভায় স্বাস্থ্যবিধি নো মাস্ক নো সার্ভিস মেনে হোটেল চালাতে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। দুজনের কক্ষে একজন করে ভাড়া দেয়ার কথা বলা হয়েছে। তবে আবাসিক হোটেল বন্ধ রাখার নির্দেশনা দেয়া হয়নি।
বান্দরবান জেলা প্রশাসক ইয়াছমিন পারভীন তিবরিজি বলেন, করোনা সংক্রমণ পরিস্থিতি মারাত্মক আকার ধারণ করেছে। সংক্রমণ রোধে ১ এপ্রিল থেকে আগামী ২ সপ্তাহের জন্য বান্দরবান জেলার সবগুলো পর্যটন স্পট বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।
খাগড়াছড়ি প্রতিবেদক জানান, বুধবার বিকেলে খাগড়াছড়ি জেলা প্রশাসক প্রতাপ চন্দ্র বিশ্বাস এক বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছেন, বৃহস্পতিবার থেকে ১৪ দিন জেলার সব পর্যটন কেন্দ্রে পর্যটকদের প্রবেশ নিষিদ্ধ করা হয়েছে।
এদিকে উচ্চ মাত্রার করোনাভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে সারাদেশের মতো খাগড়াছড়িতে রাত ১০ টার পর জরুরি সেবার কাজে নিয়োজিত ব্যক্তি ও পরিবহন ছাড়া সাধারণের চলাচলও নিষিদ্ধ করা হয়েছে। একই সাথে সভা সমাবেশও বন্ধ থাকবে।

চিড়িয়াখানা বন্ধ ঘোষণা
চট্টগ্রাম চিড়িয়াখানা সাময়িক বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। বুধবার রাতে চট্টগ্রাম চিড়িয়াখানা নির্বাহী কমিটির সদস্যসচিব ও হাটহাজারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. রুহুল আমিন এ তথ্য জানিয়েছেন। করোনা পরিস্থিতি বিবেচনায় ১ থেকে ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত চট্টগ্রাম চিড়িয়াখানা বন্ধ থাকবে।