চসিক পরিচালিত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সরকারি ঘোষণার বাইরে ফি নিলে ব্যবস্থা : সুজন

0
220

সিটি করপোরেশনের প্রশাসক খোরশেদ আলম সুজন বলেন, করপোরেশন পরিচালিত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে সরকারি নির্ধারিত টিউশন ফি ও প্রতি মাসের নির্ধারিত বেতনের অতিরিক্ত কোন ফি আদায় করা যাবে না। যদি সরকারি নির্দেশনার বাইরে জোরপূর্বক ফি আদায়ের অভিযোগ পাওয়া যায়, তাহলে ওই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধান ও সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে। তবে করোনা পরিস্থিতিতে আয় উপার্জন কমে যাওয়ায় কোন অভিভাবকের সন্তানের যদি বেতন দিতে সমস্যা হয়, সে ক্ষেত্রে তা কিস্তিতে পরিশোধ এবং মওকুফের বিশেষ ব্যবস্থা নেবে করপোরেশেন। নগরবাসীকে এ নিয়ে কোন অপপ্রচারে বিভ্রান্ত না হওয়ার আহ্বান জানান প্রশাসক।
তিনি গতকাল মঙ্গলবার পূর্ব বাকলিয়া সিটি করপোরেশন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজের প্রথম গভর্নিং বডির সভায় একথা বলেন।
করোনা মহামারির দ্বিতীয় ঢেউয়ের কারণে, প্রশাসক খোরশেদ আলম সুজন তাঁর ‘ক্যারাভান’ কর্মসূচি স্থগিত করে নগরীর প্রতি ওয়ার্ডে জনসমাবেশ এড়িয়ে সুরক্ষা নিয়ে জনসাধারণের সঙ্গে মতবিনিময়ে যাচ্ছেন।
স্কুল গভর্নিং কমিটি ও ওয়ার্ডের মতবিনিময় সভায় প্রধান শিক্ষা কর্মকর্তা সুমন বড়–য়া, প্রশাসকের একান্ত সচিব মুহাম্মদ আবুল হাশেম, রাজনীতিক আহমদ ইলিয়াস, পূর্ব বাকলিয়া সিটি করপো রেশন উচ্চ বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ আবু তালেব বেলাল, নির্বাহী প্রকৌশলী ফরহাদুল আলম, স্থানীয় সমাজসেবক মো. এরশাদ, নাঈম রনি প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
প্রশাসক পূর্ব বাকলিয়া এলাকার আবদুল লতিফ হাট খোলা ব্রিজের পাশের সড়কের আশ-পাশ হেঁটে জনসাধারণের মাঝে করোনা সচেতনতায় মাস্ক ও সাবান বিতরণ করেন। এ সময় আবদুল লতিফহাট খোলা ব্রিজের পাশে খালের কচুরিপানা দেখে তা, আগামী শুক্রবার থেকে দ্রুততার সাথে করপোরেশনের পরিচ্ছন্নতা কর্মীদের পরিষ্কারের নির্দেশ দিয়ে, তিনি ওইদিন এই কার্যক্রম পরিদর্শনে আসবেন বলে জানান।
প্রশাসক খোরশেদ আলম সুজন আরো বলেন, পূর্ব বাকলিয়া সিটি করপোরেশন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে মাসে খরচ হয় ২ লাখ ৯শ’ টাকা। এভাবে করপোরেশনের শিক্ষাখাতে বছরে ভর্তুকি দেয়া লাগে প্রায় ৪০ কোটি টাকা। কর্মকর্তা কর্মচারীর বেতন খাতে ব্যয় হয় ১৮ কোটি টাকা। অবসরে যাওয়া কর্মকর্তা-কর্মচারীদের মধ্যে এখনো ৩১৪ জনের তালিকা আমার হাতে আছে। যার মধ্যে কিছু কিছু টাকা পরিশোধ করেছি। এর মধ্যে ৪ জন মৃত্যুবরণ করেছেন। তারা প্রাপ্য টাকা হাতে পাননি।
সামগ্রিক এই পরিস্থিতির মধ্যে করপোরেশনকে তাঁর সার্বিক সেবা কার্যক্রম পরিচালনা করতে হচ্ছে। বিজ্ঞপ্তি