খাগড়াছড়িতে প্রতিবন্ধী নারী ধর্ষণের অভিযোগ আটক ৭

329

নিজস্ব প্রতিবেদক, খাগড়াছড়ি :

খাগড়াছড়ির বাড়িতে দুর্ধর্ষ ডাকাতি এবং বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী নারীকে ধর্ষণের অভিযোগে পুলিশ চট্টগ্রামসহ খাগড়াছড়ির বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে সাতজনকে আটক করেছে। তবে পুলিশ ঘটনাটির তদন্তের স্বার্থে আটককৃতদের নাম প্রকাশে অস্বৃীকৃতি জানিয়েছে। খাগড়াছড়ি জেলা শহরের বলপাইয়া আদাম এলাকায় গোলাবাড়ি ইউনিয়ন পরিষদের সামনে গত বুধবার দিবাগত গভীর রাতে এ ঘটনা ঘটে। এ ব্যাপারে প্রতিবন্ধী নারীর মা বাদি হয়ে পরদিন থানায় মামলা দায়েরের পর পুলিশ নড়েচড়ে ওঠে।
গতকাল খাগড়াছড়ি হাসপাতালে স্বাস্থ্যগত পরীক্ষা ও চিকিৎসা শেষে ভিকটিম বাড়ি ফিরে গেছেন বলে হাসপাতাল সূত্র জানিয়েছে।
হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক (আরএমও) ডা. পূর্ণজীবন চাকমা জানান, ভিকটিম শারীরিকভাবে বেশ দুর্বল ছিলেন। চিকিৎসার পর শংকামুক্ত হয়েছেন। পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাটি গুরুত্ব দিয়ে তদন্ত অব্যাহত রেখেছেন বলে জানান পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আব্দুল আজিজ।
থানায় এজহার দিতে যাওয়া বিন্দুলাল চাকমার স্ত্রী পুষ্পরাণী চাকমা জানান, ঘরে তারা নয়জন ছিলেন। প্রায় সমবয়সী ডাকাত দলের সদস্যরা একটি কক্ষে তার বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী মেয়েকে (২৬) হাত-পা ও মুখ ওড়না দিয়ে বেঁেধ ধর্ষণ করেছে। এ সময় তারা কানের দুল, আংটিসহ অন্তত ৩ ভরি স্বর্ণালংকার ও মোবাইল ফোনসেট নিয়ে গেছে।
এ ব্যাপারে খাগড়াছড়ি সদর থানার ওসি আব্দুর রশীদ জানিয়েছেন, আটককৃত সকলকে আপাতত সন্দেহভাজন হিশেবে দেখা হচ্ছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে বেশ কয়েকজনের জড়িত থাকার সত্যতা পাওয়া গেছে। তাদেরকে নিয়ে এখনো অভিযান চলছে। শিগগির ঘটনার সাথে জড়িত নয়জনকেই আটক করে আদালতে প্রেরণ করা হবে।