করোনায় আকিজ গ্রুপের পরিচালক মমিনের মৃত্যু

0
245

সুপ্রভাত ডেস্ক :

করোনাভাইরাসে (কোভিড-১৯) মারা গেছেন আরও একজন বড় শিল্পোদ্যোক্তা। তিনি দেশের অন্যতম শীর্ষ শিল্পগোষ্ঠী আকিজ গ্রুপের পরিচালক শেখ মোমিন উদ্দিন। শ্বাসকষ্টসহ করোনাভাইরাস উপসর্গ নিয়ে তিনি আজ সোমবার বিকালে রাজধানী মগবাজার আদ্-দ্বীন হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন।

মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৬৩ বছর। তিনি বৃদ্ধা মা, দুই স্ত্রী, ১ ছেলে ৩ মেয়ে, ভাইবোনসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

আদ্-দ্বীন মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের আইসিইউ বিভাগের চিফ কনসালটেন্ট ডা. মো. সিরাজুল ইসলাম গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন, শেখ মোমিন উদ্দীন গত ১৪ আগস্ট রাতে করোনা আক্রান্ত হয়ে তীব্র শ্বাসকষ্ট নিয়ে ভর্তি হন। তিনি আগে থেকে ডায়াবেটিস ও উচ্চ রক্তচাপজনিত সমস্যায় ভুগছিলেন।

হাসপাতালে ভর্তির পরে তাকে লাইফ সাপোর্টে রাখা হয়। হাসপাতালে ভর্তির পর করোনাভাইরাস পরীক্ষায় প্রথমে পজিটিভ এসেছে। চিকিৎসাধীন অবস্থায় পরের পরীক্ষায় নেগেটিভ এসেছিল।

গত রাতে আদ্‌-দ্বীন হাসপাতাল জামে মসজিদে নামাজে জানাজা শেষে লাশ নিয়ে যাওয়া হয় যশোরের নওয়াপাড়ায় তাঁর প্রতিষ্ঠিত এসএএফ ইন্ডাস্ট্রিতে। সেখানে দ্বিতীয় দফা জানাজা শেষে কাল মঙ্গলবার নিজ গ্রাম মধ্যডাঙ্গায় পারিবারিক কবরস্থানে তাকে দাফন করার কথা রয়েছে।

শেখ মোমিন উদ্দিন প্রয়াত শিল্পপতি আকিজ উদ্দিনের ১৫ ছেলেমেয়ের মধ্যে মেজ ছিলেন। তিনি রাজঘাট জাফরপুর হাইস্কুল থেকে এসএসসি পাশ করেন। খুলনা বিএল কলেজ থেকে বিএসসি পাশ করে ইংল্যান্ডে যান। সেখানকার নর্থ হ্যামটন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে লেদার টেকনোলজিতে উচ্চতর ডিগ্রি অর্জন করেন। আশির দশকে মোমিন উদ্দিন অভয়নগর উপজেলার তালতলার পরিত্যক্ত এসএএফ চামড়া কারখানার দায়িত্ব নেন।

শতভাগ রপ্তানিমুখী চামড়া শিল্পের এসএএফ ইন্ডাস্ট্রিজের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ছিলেন তিনি। চামড়া শিল্পে অসামান্য অবদান রাখার কারণে তিনি একাধিকবার সরকার ঘোষিত সিআইপি পদক অর্জন করেন। ঢাকা, যশোর, সাভারে বেশ কয়েকটি শিল্প প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলেন উদ্যমী এই শিল্পপতি।

মঙ্গলবার সকাল ১০টায় এসএএফ’র কারখানার মধ্যে প্রথম নামাজের জানাজা এবং বেলা ১২টার দিকে গ্রামের বাড়ি খুলনার ফুলতলা উপজেলার বেজেরডাঙ্গা গ্রামে দ্বিতীয় জানাজা শেষে পিতার কবরের পাশে তাকে দাফন করা হবে।