ওসি প্রদীপের সহযোগী কনস্টেবল রুবেল গ্রেফতার

0
183

নিজস্ব প্রতিনিধি, টেকনাফ :

অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা হত্যা মামলায় জড়িত থাকার অভিযোগে ওসি প্রদীপ কুমার দাসের সহযোগী রুবেল শর্মা নামে আরো এক পুলিশ সদস্যকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১৫। পরে তাকে আদালতে হাজির করা হলে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেয়া হয়। গ্রেফতার রুবেল শর্মা টেকনাফ মডেল থানার পুলিশ কনস্টেবল হিসেবে কর্মরত রয়েছেন। র‌্যাব-১৫ ব্যাটালিয়ানের উপ-অধিনায়ক মেজর মেহেদী হাসান জানিয়েছেন, ১৩ সেপ্টেম্বর রাতে টেকনাফ থানা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

তিনি বলেন, গ্রেফতারের পর রুবেল শর্মাকে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে সোমবার (১৪ সেপ্টেম্বর) দুপুর ১২টায় কক্সবাজারের জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম তামান্না ফারাহ’র আদালতে হাজির করা হয়। পরে আদালত তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন।

মেজর মেহেদী হাসান বলেন, আলোচিত মেজর সিনহা হত্যা মামলায় আগে গ্রেফতারকৃত অন্যান্য আসামিরা রিমান্ডে জিজ্ঞাসাবাদ করার সময় পুলিশের কনস্টেবল রুবেল শর্মার নাম আসে। এ কারণে রোববার রাতে রুবেলকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য র‌্যাব কার্যালয়ে নিয়ে আসে। তাকে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ শেষে মেজর সিনহা হত্যা মামলায় জড়িত থাকার সন্দেহে গ্রেফতার দেখানো হয়। র‌্যাবের এ কর্মকর্তা বলেন, ‘গ্রেফতার রুবেলকে এখনো কোনো রিমান্ড চাওয়া হয়নি। তদন্ত কর্মকর্তা প্রয়োজন মনে করলে পরবর্তীতে তাকে রিমান্ড নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা যেতে পারে।’

এদিকে দুপুর সোয়া ২ টার দিকে গ্রেফতার রুবেল শর্মাকে প্রিজন ভ্যানে করে কক্সবাজার জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে বলে জানান কক্সবাজার আদালত পুলিশের পরিদর্শক প্রদীপ কুমার দাশ।

উল্লেখ্য, ৩১ জুলাই রাতে টেকনাফের শামলাপুর চেকপোস্টে পুলিশের গুলিতে নিহত হন অবসরপ্রাপ্ত সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ খান। এরপর ৫ আগস্ট এ ঘটনায় ৯ জন পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে কক্সবাজার আদালতে মামলা করেন সিনহার বোন শারমিন শাহরিয়ার ফেরদৌস। মামলাটি র‌্যাবকে তদন্তভার দেয়া হয়।

গত ৬ আগস্ট আদালতে আত্মসমর্পণ করেন পুলিশের ৭ সদস্য। গত এক মাসে র‌্যাব এপিবিএন’র ৩ সদস্য, পুলিশের মামলার ৩ সাক্ষীকে আটক করে মোট ১৩ জনকে নানা মেয়াদে রিমান্ডে নিয়েছে। ১২ জন আসামি এ পর্যন্ত আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে।