ওসাকার সিদ্ধান্ত বদল

0
238

সুপ্রভাত ক্রীড়া ডেস্ক :
যুক্তরাষ্ট্রের মাটিতে জর্জ ফ্লয়েড ঘটনার পুনরাবৃত্তি। গত রবিবার উইসকনশিন প্রদেশের কেনোশা শহরে অ্যাফ্রো-আমেরিকান কৃষ্ণাঙ্গ জ্যাকব ব্লেককে পুলিশের গুলিবিদ্ধ করার ঘটনায় ফের গর্জে উঠেছে মার্কিন মুলুক। ঘটনার প্রতিবাদে বুধবার সিনসিনাটি ওপেনের কোয়ার্টার ফাইনাল জিতে উঠে সেমিফাইনাল থেকে নাম প্রত্যাহার করেছিলেন জাপানের নাওমি ওসাকা। বৃহস্পতিবার সেই সিদ্ধান্ত বদলে দু’বারের গ্র্যান্ড স্ল্যামজয়ী জাপানের কৃষ্ণাঙ্গ টেনিস প্লেয়ারটি জানালেন শুক্রবার সেমিফাইনালে অংশগ্রহণ করবেন তিনি।
ওসাকা জানিয়েছেন, প্রাথমিকভাবে ঘটনার আকস্মিকতায় নাম প্রত্যাহার করে নিলেও ডব্লুটিএ এবং অন্যান্য গভর্নিং বডিগুলোর সঙ্গে দীর্ঘ আলোচনা করে আমি সিদ্ধান্ত বদল করেছি। গার্ডিয়ান পত্রিকায় প্রকাশিত রিপোর্ট অনুযায়ী ওসাকা জানিয়েছেন, প্রতিযোগীতায় আর নামতে না হলে সত্যি খুব খুশি হতাম কিন্তু পারিপার্শ্বিক সবদিক বিবেচনা করে কোর্টে ফেরার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। সংবাদমাধ্যমটিকে ২২ বছরের টেনিস তারকা জানিয়েছেন, ‘আপনারা সবাই জানেন বর্ণবৈষম্য এবং পুলিশি নৃশংসতার প্রতিবাদে আমি গতকাল টুর্নামেন্ট থেকে নাম প্রত্যাহার করেছিলাম। তবে সিদ্ধান্ত বদলে আমি প্রতিদ্বন্দ্বীর বিরুদ্ধে কোর্টে নামতে প্রস্তুত।’
উল্লেখ্য, নাওমির গৃহীত প্রাথমিক সিদ্ধান্তের সমর্থনে বৃহস্পতিবার টুর্নামেন্টের সমস্ত ম্যাচ স্থগিত রাখার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছিল আয়োজকরা। তার সিদ্ধান্তকে সম্মান জানিয়ে আয়োজকদের এই পদক্ষেপকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন ওসাকা। বুধবার সিনসিনাটি ওপেনের মঞ্চে উইসকনশিন প্রদেশে ঘটে যাওয়া ঘটনায় প্রথম প্রতিবাদের সুর চড়ান জাপানের মহিলা তারকা প্লেয়ারটি। টুর্নামেন্টের মাঝপথ থেকে নাম প্রত্যাহার করে তিনি বলেন, ‘আমি আগে একজন কৃষ্ণাঙ্গ, তারপর একজন অ্যাথলিট।’
টুইটবার্তায় জাপানের অ্যাথলিট আরও লেখেন, ‘একজন কৃষ্ণাঙ্গ মহিলা হিসেবে আমি মনে করি আমার খেলা দেখার চেয়ে এই মুহূর্তে অনেক গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে মনোযোগ দেওয়ার আছে। আমার বলছি না যে আমি না খেললে রাতারাতি সব বদলে যাবে। তবে আমার নাম প্রত্যাহারে শ্বেতাঙ্গ মহলে যদি আলোচনা শুরু হয় তাহলে মনে করব আমার পদক্ষেপ সঠিক ছিল।’
ওসাকার নাম প্রত্যাহারের পর ডব্লুটিএ বৃহস্পতিবার সিনসিনাটি ওপেনের সমস্ত খেলা বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে। পাশপাশি এমএলবি এবং এমএলএস’র ম্যাচও স্থগিত রাখার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে। বুধবার এস্তোনিয়ার আনেত কোন্তাভেতকে ৪-৬, ৬-২, ৭-৫ সেটে হারিয়ে সিনসিনাটি ওপেনের সেমিফাইনালে পৌঁছে গিয়েছিলেন ওসাকা। টুর্নামেন্ট সাময়িক স্থগিত রাখার সিদ্ধান্ত প্রসঙ্গে এক বিবৃতিতে ডব্লুটিএ জানিয়েছিল, ‘যুক্তরাষ্ট্রে বর্ণবৈষম্য এবং সামাজিক অন্যায়ের প্রতিবাদে টেনিসমহল সম্মিলিত ভাবে একটি পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে।’ খবর : কলকাতাটোয়েন্টিফোর’র।