এক নাটকে দুই নাদিয়া

261

সুপ্রভাত ডেস্ক
নাচের মাধ্যমে মিডিয়ায় আসেন নাদিয়া আহমেদ। পরে মডেলিং এবং অভিনয়েও নাম লেখান। দেড় দশকে অত্যন্ত পরিচিত মুখ তিনি।
অন্যদিকে সালহা খানম নাদিয়া এক দশক আগে মডেলিং দিয়ে মিডিয়ায় কাজ শুরু করলেও এখন অভিনয়ে নিয়মিত। খ- নাটকে এর আগে কয়েকবার একসঙ্গে কাজ করলেও এই দুই নাদিয়া প্রথমবার একসঙ্গে ধারাবাহিক নাটকে অভিনয় করেছেন। নাটকের নাম ‘ফ্যামিলি ফ্যান্টাসি’। গত বছরের শেষ দিকে এর শুটিং হয়েছিল। আদিত্য জায়িদের রচনায় এটি পরিচালনায় আছেন অনন্য ইমন। খবর বাংলাট্রিবিউনের।
এর গল্পে দেখা যাবে, আবেদ সাহেবের পরিবারের সদস্য সংখ্যা ৭ জন। কিন্তু এই সাত জনের নানামাত্রিক আচরণে সমস্ত পরিবারের ওপর সাত আসমান ভেঙে পড়ে। এমনিতে সবকিছু ঠিকঠাক। দুঃখ যা একটু, তা হলো বড় মেয়েকে নিয়ে। বিয়ের ছয় মাসের মাথায় ‘সংসার করা সম্ভব নয় বলে’ স্বামীকে ছেড়ে চলে এসেছে। কেন, কী সমস্যা, সেসবের কোনও উত্তর নেই। একেক সময় একেক রকম তথ্য সে দেয়। যার কোনোটা সত্য, কোনোটা বানোয়াট।
বড় ছেলে বিশ্ববিদ্যালয় পাস করে বেকার। সমাজ বদলের চিন্তায় নানারকম কাজে যুক্ত হয়ে পড়ে সে। এখনও অবিবাহিত। ছোট ছেলেমেয়ে দুটো পিঠাপিঠি। সারাক্ষণ দুই জনের মধ্যে ঝগড়া, অভিমান চলতে থাকে। তবে বেশিক্ষণ একা একা থাকতে পারে না। দু’জনই বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ে।
আবেদ সাহেবের স্ত্রী সন্তানদের সব ব্যাপারেই সাহায্য করে থাকে। সন্তানদের সবকিছুতেই তার সায়। চেষ্টা করেও কঠোর হতে পারে না সে। গল্পটি এই পরিবারকে ঘিরেই।
নির্মাতা অনন্য ইমন জানান, নাটকে দুই বোনের চরিত্রে অভিনয় করেছেন দুই নাদিয়া। হাস্যকর মনে হলেও এতে উঠে এসেছে সমাজের নানান অসঙ্গতির কথা। তাই নাটকটি পারিবারিক ও সামাজিক বলা যায়।
নাটকের বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন জিয়াউল হাসান কিসলু, ডলি জহুর, শতাব্দী ওয়াদুদ, নাদিয়া আহমেদ, ইরফান সাজ্জাদ, সালহা খানম নাদিয়া, কাজী উজ্জ্বল, ইভানা, এস আই শহীদ, ঈশিকা, মৌসুমি বিশ্বাসসহ অনেকে।
নির্মাতা জানান, ‘ফ্যামিলি ফ্যান্টাসি’ ধারাবাহিকটি গতকাল মঙ্গলবার থেকে আগামীকাল বৃহস্পতিবার রাত ৮টা ১৫ মিনিটে প্রচার হবে দেশটিভিতে।