উপসর্গে মারা যাওয়া ২ জনের কোভিড-১৯ পজিটিভ ছিলো

296

রাঙামাটি  জেলায় শনাক্ত বেড়ে ৭৮

 

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাঙামাটি<

গত ৩১ মে রাঙামাটির কাপ্তাই উপজেলায় উপসর্গ নিয়ে মারা যাওয়া যুবক এবং ৬ জুন রাঙামাটি শহরের ভেদভেদীতে উপসর্গ নিয়ে মারা যাওয়া প্রবীনের কোভিড-১৯ পজিটিভ রিপোর্ট এসেছে ৪ জুন সোমবার।

সোমবার সকালে চট্টগ্রাম বিআইডিআইটি থেকে আসা জেলার আরো নতুন ৭ জনের পজিটিভ রিপোর্টে এই দুইজনের নামও আছে বলে নিশ্চিত করেছেন রাঙামাটি সিভিল সার্জন অফিসের করোনা বিষয়ক ফোকাল পার্সন ডা. মোসত্মফা কামাল। এনিয়ে জেলায় মোট শনাক্ত হলো ৭৮ জন।  জেলায় প্রথম করোনায় এই দুজনের মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করে রাঙামাটি সিভিল সার্জন অফিসের করোনা ফোকাল পার্সন ডা. মোসত্মফা কামাল জানান, সোমবার আসা রিপোর্ট অনুসারে আক্রানত্মদের মধ্যে রেস্টহার্ট ও শালবাগান পুলিশ ক্যাম্পের ২ পুলিশ সদস্য,কাউখালীতে এক নারী স্বাস্থ্যকর্মী, কাপ্তাইয়ে উপসর্গ নিয়ে মারা যাওয়া যুবক  ও গ্রামীণ ব্যাংকে কর্মরত আরেক যুবক, রাঙামাটি শহরের ভেদভেদী এলাকার করোনা উপসর্গ নিয়ে শনিবার মারা যাওয়া প্রবীণ ব্যক্তি ও তবলছড়ি নীচের বাজারের এক নারী রয়েছেন।

গত ৬ মে জেলায় প্রথম করোনা শনাক্ত হওয়ার পর উপসর্গ নিয়ে গত একমাসে ৫ জনের মৃত্যু হলেও এ প্রথম মারা যাওয়া কারো রিপোর্ট পজিটিভ আসলো,তাও একই দিনে দুজনের। এদের মধ্যে একজন শহরের ভেদভেদী এলাকার ৭০ বছর বয়সী প্রবীণ। তার পুত্রের দোকান কর্মচারীর করোনা পজিটিভ আসার পর গত ৩ জুন তার নমুনা সংগ্রহ করা হয়। রিপোর্ট আসার আগেই ৬ জুন মারা যান তিনি। তার পরিবারকে রিপোর্ট নেয়ার পর থেকেই কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছিলো।

অন্যদিকে কাপ্তাইয়ে উপসর্গ নিয়ে মারা যাওয়া  ব্যক্তিটি ছিলেন থুইঅং প্রম্ন মারমা (২৬)। তিনি চট্টগ্রামের রয়েল হাসপাতালের সিনিয়র স্টাফ নার্স ছিলেন। এ স্বাস্থ্যকর্মী চট্টগ্রামে করোনা সংক্রমিত হন বলে জানা যায়। পরে তিনি অসুস্থ হয়ে পড়লে ছুটি নিয়ে বাড়িতে চলে আসেন এবং গত ৩১ মে সেখানেই মারা যান।

করোনা উপসর্গ থাকায় স্বাস্থ্য বিধি মনেই দুই ব্যাক্তির দাফন ও সৎকার করা হয়েছিলো বলে নিশ্চিত করেছেন সিভিল সার্জন অফিসের মেডিক্যাল অফিসার ও করোনা বিষয়ক ফোকাল  পার্সন ডা. মোসত্মফা কামাল।

রাঙামাটি জেলায় ১০ টি উপজেলার মধ্যে নয়টিতেই করোনা শনাক্ত হয়েছে। এখন পর্যনত্ম করোনা শনাক্ত হয়নি ভারতের মিজোরাম সীমানত্মবর্তী বরকল উপজেলায়। সর্বশেষ ৭ জুন রবিবার প্রথমবারের মতো ১ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে আয়তনে দেশের সবচে বড় উপজেলা বাঘাইছড়িতে।