আলোচনা সভা : শিশুদের নিরাপত্তার দায়িত্ব সকলের

0
125

বিশ্ব শিশু দিবস ও শিশু অধিকার সপ্তাহ (৫-১১ অক্টোবর) এর অংশ হিসেবে বাংলাদেশ শিশু একাডেমি চট্টগ্রামের উদ্যোগে জাতীয় শিশু কন্যা দিবসের আলোচনা সভা, কন্যা শিশুদের চিত্রাংকন ও রচনা প্রতিযোগিতা গতকাল বুধবার বিকেল সাড়ে ৩টায় একাডেমি মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়।
দিবসটির এবারের প্রতিপাদ্য বিষয় হচ্ছে-‘আমরা সবাই সোচ্চার, বিশ্ব হবে সমতার’।
শিশু একাডেমির আয়োজনে ও বেসরকারি সংস্থা মমতা’র সহযোগিতায় অনুষ্ঠিত জাতীয় শিশু কন্যা দিবসের আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন জেলা শিশু বিষয়ক কর্মকর্তা নারগীস সুলতানা।
আলোচনা পর্বে অতিথি ছিলেন মমতা চট্টগ্রামের প্রধান সম্মন্বয়ক (প্রশিক্ষণ) রোকসানা আফরোজ। কন্যা শিশুদের পক্ষে বক্তব্য রাখেন আইরিন আক্তার।
আলোচনা সভার পূর্বে দিবসটি উপলক্ষে চট্টগ্রামের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান থেকে আগত প্রতিযোগী কন্যা শিশুরা গান ও আবৃত্তি পরিবেশন করেন।
শেষে কন্যা শিশুদের অংশগ্রহণে শিশুদের চিত্রাংকন ও রচনা প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনা সভায় বক্তারা বলেন, পরিবার, সমাজ কিংবা রাষ্ট্রের কোথাও কন্যা শিশুদের প্রতি কোন ধরণের বৈষম্যমূলক আচরণ করা অনুচিত। বিভিন্ন সভা-সেমিনারে ছেলে-মেয়ের সমান অধিকারের কথা বলা হলেও বাস্তব জীবনে ছেলেদের প্রতি পক্ষপাতমূলক আচরণ করা হয়। মেয়েদের অধিকার ছিনিয়ে নিতে আমরা কেউ দ্বিধাবোধ করিনা। আমাদের পারিবারিক ও সামাজিক জীবনে ছেলে-মেয়ের মধ্যে কোনো বৈষম্য রাখলে সরকারের একার পক্ষে দেশকে সত্যিকার অর্থে এগিয়ে নেয়া সম্ভব নয়। এজন্য সমন্বিত উদ্যোগ প্রয়োজন। বক্তারা আরো বলেন, শিশুদের নিরাপত্তার দায়িত্ব পরিবারের, সমাজের, রাষ্ট্রের ও সকলের।
বিভিন্ন কারণে কন্যা শিশুরা ধর্ষণ, নির্যাতন ও ইভ টিজিংয়ের শিকার হচ্ছে। পারিবারিক অসচেতনতার কারণে অনেক শিশু শিক্ষার আলো ও তাদের অন্যান্য ন্যায্য অধিকার থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। ১৮ বছরের নিচে বাল্য বিবাহের কারণে অনেক কন্যা শিশু অকালে ঝরে পড়ছে। ডিভোর্সের শিকার হচ্ছেন অসংখ্য নারী। মেয়েদের অধিকার মেয়েদেরকেই আদায় করে নিতে হবে। অধিকার আদায় করতে গিয়ে উশৃঙ্খলতা নয়, সমন্বয়ের মাধ্যমে করতে হবে। কন্যা শিশুদের সুরক্ষাসহ তারা যাতে প্রাপ্য অধিকার থেকে বঞ্চিত না হয় সে বিষয়ে সকল অভিভাবক ও শিক্ষকদের সচেতন হতে হবে। পাশাপাশি বাল্যবিবাহ রোধ ও নানামুখী নির্যাতন থেকে কন্যা শিশুদের রক্ষায় সম্মিলিতভাবে এগিয়ে আসতে হবে। বিজ্ঞপ্তি