‘আমার দ্রুততম হাফ সেঞ্চুরির রেকর্ড ভাঙার ক্ষমতা রয়েছে হার্দিকের’

0
263

সুপ্রভাত ক্রীড়া ডেস্ক :
১৯ সেপ্টেম্বর, ২০০৭। স্থানটা দক্ষিণ আফ্রিকার কিংসমেড ডারবান। টি-২০ বিশ্বকাপে স্টুয়ার্ট ব্রডকে এক ওভারে ৬টি ছক্কা হাঁকিয়েছিলেন যুবরাজ। যা আজও গেঁথে রয়েছে ক্রিকেট অনুরাগীদের হৃদয়ে। ওইদিন ব্যাট হাতে টি-২০ ক্রিকেটে আরও একটি রেকর্ড গড়েছিলেন ‘পঞ্জাব কা পুত্তর’। সেদিন ১২ বলে যুবরাজের অর্ধশতরান হাঁকানোর রেকর্ডটি অক্ষত বিগত ১২ বছরেরও বেশি সময় ধরে।
ভারতীয় দলে এমন কোনও ব্যাটসম্যান আছেন কী যিনি আপনার এই রেকর্ড ভাঙতে পারেন? সম্প্রতি এমন প্রশ্নের উত্তরে যুবরাজ জানালেন হার্দিক পান্ডিয়ার মধ্যে মশলা রয়েছে তার টি-২০ ক্রিকেটে দ্রুততম অর্ধশতরানের রেকর্ড ভাঙার। হার্দিকের হার্ড হিটিংয়ের ফ্যান যুবরাজ জাতীয় দলের অল-রাউন্ডার কে ‘অসাধারণ প্রতিভা’ হিসেবে ব্যক্ত করেছেন স্পোর্টসস্ক্রিনের ইউ টিউব পেজে। এপ্রসঙ্গে ২০১৯ আইপিএলে নাইট রাইডার্সের বিপক্ষে হার্দিকের ৩৪ বলে ৯১ রানের ঝোড়ো ইনিংসেরও অবতারণা করেছেন প্রাক্তন তারকা ব্যাটসম্যান। হার্দিকের ওই ইনিংসকে আইপিএলে দেখা তার সেরা ইনিংস হিসেবে বর্ণনা করেছেন তিনি।
যুবির কথায়, ‘আমার মনে হয় টি-২০’তে আমার দ্রুততম অর্ধশতরানের রেকর্ড ভাঙার যাবতীয় রসদ হার্দিকের রয়েছে। হার্দিক একজন অসামান্য প্রতিভার অধিকারী। কিন্তু ওর মাথা ঠান্ডা করার জন্য একজনকে প্রয়োজন। হার্দিক কঠোর পরিশ্রমী, খুব ভালো ছেলে।’ একইসঙ্গে ২০২৩ বিশ্বকাপে ও দলের সম্পদ হয়ে উঠতে পারে বলে জানিয়েছেন ছয় ছক্কার নায়ক। যুবির কথায় পিচের যে কোনওদিকে ফ্রি স্ট্রোক নিতে পারে হার্দিক।
হার্দিক ছাড়াও আরও একজনকে এই তালিকায় রেখেছেন যুবরাজ। তিনি আর কেউ নন, হার্দিকেরই জাতীয় দলের সতীর্থ এবং তার বিতর্কিত চ্যাট শো’য়ের সঙ্গী কেএল রাহুল।
উল্লেখ্য, ২০০৭ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের গ্রুপ ই’র গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে ইংল্যান্ডের মুখোমুখি হয়েছিল মহেন্দ্র সিং ধোনি নেতৃত্বাধীন ভারতীয় দল। দক্ষিণ আফ্রিকার কিংসমেড ডারবানে হওয়া সেই ম্যাচে প্রথমে ব্যাট করে ২০ ওভারে ৪ উইকেট হারিয়ে ২১৮ রানের বিশাল স্কোর খাড়া করেছিল টিম ইন্ডিয়া। পরে ১৮ রানে সেই ম্যাচ জিতেছিলে ভারত। ১৬ বলে ৫৮ রানের বিধ্বংসী ইনিংস এসেছিল যুবরাজের ব্যাট থেকে। মাত্র ১২ বলে অর্ধশতরান করেছিলেন যুবি। যা আজও অক্ষত।
খবর : কলকাতাটোয়েন্টিফোর’র।