আগ্রাবাদ রোটার‌্যাক্ট ক্লাবের গণবক্তৃতা প্রতিযোগিতা

0
87

স্বাধীনতা দিবস ও বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী

স্বাধীনতা দিবসের সুবর্ণজয়ন্তী ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবর্ষ উপলক্ষে রোটারি ক্লাব অব আগ্রাবাদের পৃষ্ঠপোষকতায় গণবক্তৃতা প্রতিযোগিতার আয়োজন করে রোটার‌্যাক্ট ক্লাব অব আগ্রাবাদ। নগরীর কাজীর দেউড়ীস্থ রোটারি সেন্টারে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চট্টগ্রামের ৮টি ক্লাব এই প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে।
‘ভবিষ্যৎ বাংলাদেশ নিয়ে রোটার‌্যাক্টরদের ভাবনা’ শিরোনামে এই প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারীরা বাংলাদেশের বিভিন্ন সমস্যা এদের সমাধান ও অর্জন নিয়ে বক্তৃতা করেন। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের দর্শন বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক মাছুম আহমেদ। রোটার‌্যাক্টর সাবিত্রী চক্রবর্তীর সঞ্চালনায় ও সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিচারক হিসাবে ছিলেন আবৃত্তিশিল্পী ও উপস্থাপক জেবুন নাহার শারমিন, অভিনেতা ইফরাদ আবেদ, আবৃত্তিশিল্পী ফাহিমউদ্দীন শাওন, বিতার্কিক হিমাদ্রি শেখর নাথ ও এনামুল হক। আহ্বায়ক ছিলেন রোটার‌্যাক্ট ক্লাব অব আগ্রাবাদের সাবেক সভাপতি রফিক আহমেদ সোবহানী। দুই পর্বে অনুষ্ঠিত এই প্রতিযোগিতায় প্রথম স্থান অধিকার করেন চট্টগ্রাম রোটার‍্যাক্ট ক্লাবের শরিফুল কাদের রাকিব, দ্বিতীয় সাউথের ফাতিমা আফসানা, ইসলামাবাদের সাঈদ আনোয়ার তৃতীয় ও শাহাদাত রাদ চতুর্থ এবং পঞ্চম চট্টগ্রাম রোটারেক্ট ক্লাবের সাগর সেন। প্রধান অতিথির বক্তব্যে মাছুম আহমেদ বলেন, স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী ও বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীতে এরকম একটি আয়োজন তরুণদের জন্য স্বদেশ নিয়ে ভাবতে উৎসাহ যোগাবে।
তিনি আরো বলেন, আমাদের মনের দুটি স্তর রয়েছে। মনুষ্যত্ব ও পশুত্ব। একজন দক্ষ নেতা মনুষ্যত্বের মাধ্যমে পশুত্বকে নিয়ন্ত্রণ করে। অজ্ঞতা সমাজের বড় শত্রু। সমাজ থেকে অজ্ঞতা দূর করতে হবে।
আয়োজক কমিটির মধ্যে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন রিয়াদ, তাসলিম, মাহা, সায়েম, হারুণ, সাগর বাপ্পা, রাজি। বিজ্ঞপ্তি