অর্থের জন্য যারা রাজনীতি করেন তারা লুটেরা

0
187

ইদরিস আলমের মৃত্যুবার্ষিকীর আলোচনা সভায় মাহতাব উদ্দীন

মহানগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহতাব উদ্দীন চৌধুরী বলেছেন, বিএনপি-জামায়াত অস্থিতিশীল পরিস্থিতির সৃষ্টির চেষ্টা চালাচ্ছে। এসব অপতৎপরতা মোকাবেলা করার মতো শক্তি আওয়ামী লীগের আছে। আমাদের ঐক্যবদ্ধভাবেই বর্তমান সরকারের অগ্রযাত্রাকে ধরে রাখতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে হবে।
তিনি গতকাল বিকেলে নগরের একটি কমিউনিটি সেন্টারে আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক, কলামিস্ট ও মুক্তিযোদ্ধা ইদরিস আলমের ১৪তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে মহানগর আওয়ামী লীগের উদ্যোগে আয়োজিত আলোচনা সভায় সভাপতির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।
তিনি অসাধু ব্যবসায়ী, আড়তদার সিন্ডিকেটের উদ্দেশ্যে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেন, দেশে নিত্যপণ্যের পর্যাপ্ত মজুদ থাকা সত্ত্বেও যারা কৃত্রিম সংকট তৈরি করতে তৎপর তাদের আমরা চিনি। তাদের বিরুদ্ধে আমরা মাঠে আছি।
তিনি আরও বলেন, ইদরিস আলম একজন মেধাবী রাজনীতিক ছিলেন। তিনি অর্থ-বিত্তের জন্য রাজনীতিকে ব্যবহার করেননি। অর্থ-বৃত্তের জন্য যারা রাজনীতি করেন তারা লুটেরা। দল ও আদর্শের প্রতি নিবেদিত থেকে মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে অন্তরে আমৃত্যু ধারণ করেছিলেন।
মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও আসন্ন সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে মেয়র পদে নৌকা প্রতীক প্রার্থী এম রেজাউল করিম চৌধুরী মরহুম ইদরিস আলমের স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করে বলেন, মুসলিম হাই স্কুলের ছাত্র থাকাকালীন সময়ে ১৯৬৩ সালে শহীদ সাইফুদ্দীন খালেদ চৌধুরীর মাধ্যমে ইদরিস আলমের সাথে পরিচিত হই। তাঁর কাছে অনেক কিছুই শিখেছি এবং জেনেছি। আমি আমার জীবনে ইদরিস আলমের মতো নির্লোভ ও পরিচ্ছন্ন রাজনীতিক খুব কমই দেখেছি। তাঁর মতো নেতার অভাব এখন উপলব্ধি করি। তিনি আরো বলেন, রাজনীতি কখনো পেশা হতে পারে না। রাজনীতির মূল মর্মকথাই হচ্ছে জনকল্যাণ।
তিনি আসন্ন সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে মেয়র পদে নৌকা প্রতীক নিয়ে বিজয় হলেই নগরবাসীর সমস্যাগুলো চিহ্নিত করে তা সমাধান এবং উন্নয়নের চাকাকে গতিশীল রেখে একটি বাসযোগ্য নগরী উপহার দেওয়ার সংকল্প ব্যক্ত করে বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এই প্রথমবারের মতো মেয়র পদে প্রার্থিতার জন্য নৌকা প্রতীক আমাকে দিলেও এই প্রতীক শুধু আমার একার নয়, এ প্রতীক বঙ্গবন্ধু, স্বাধীনতা ও শেখ হাসিনার। এ প্রতীকের বিজয় নিশ্চিত করা সকল স্তরের নেতাকর্মীদের নৈতিক দায়িত্ব ও কর্তব্য।
সভায় বক্তাগণ চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন, সাংগঠনিক সম্পাদক নোমান আল মাহমুদ, চৌধুরী হাসান মাহমুদসহ করোনাক্রান্ত সকলের আশু রোগমুক্তি কামনা করেন।
চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট শেখ ইফতেখার সাইমুন চৌধুরী সঞ্চালনায় আলোচনা সভায় আরো বক্তব্য রাখেন মহানগর আওয়ামী লীগের যুব ক্রীড়া সম্পাদক দিদারুল আলম চৌধুরী, থানা আওয়ামী লীগের সিদ্দিক আলম, জেএসডি নেতা তৈয়বুর রহমান, চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগ নেতা জামশেদুল আলম চৌধুরী, গণতন্ত্র পার্টির স্বপন সেন, ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের নুরুল আজিম নুরু, ইফতেখার আলম জাহেদ, দীপংকর চৌধুরী, নুরুল আমল মিয়া, শাহীন আক্তার রুজি প্রমুখ। বিজ্ঞপ্তি