৩০ বছরের খরা কাটিয়ে ইপিএল শিরোপা লিভারপুলের

0
205

সুপ্রভাত ক্রীড়া ডেস্ক :
দীর্ঘ ৩০ বছরের অপেক্ষার অবসান। বৃহস্পতিবার রাতে দীর্ঘদিনের খরা কাটিয়ে ইংলিশ চ্যাম্পিয়ন হল লিভারপুল এফসি। এদিন চেলসি ম্যানচেস্টার সিটিকে হারাতেই পয়েন্টের বিচারে প্রিমিয়ার লিগ চ্যাম্পিয়ন হয়ে ইয়ুগেন ক্লপের দল। সেইসঙ্গে সামাজিক দূরত্বকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে লিভারপুলের মাঠ অ্যানফিল্ডে ঢুকে উল্লাসে ফেটে পড়েন সমর্থকরা। সাত ম্যাচ বাকি থাকতেই লিগ জিতে নেন মো সালাহরা।
এভার্টনের বিরুদ্ধে ০-০ ড্র করার পর প্রশ্ন উঠে গিয়েছিল যে তিন মাসের বিরতির পর কি লিভারপুল ফুটবলাররা ছন্দ হারিয়ে ফেলেছেন? তবে ক্রিস্টাল প্যালেসের বিরুদ্ধে নিখুঁত লিভারপুলের সাক্ষী থাকল ফুটলবিশ্ব। শুরুর থেকে শেষ একচ্ছত্র দাপট রেখে তিন পয়েন্ট পেল ক্লপের দল। গোলদাতার তালিকায় ছিলেন ট্রেন্ট আলেকজান্ডার আর্নল্ড, মহম্মদ সালাহ, ফাবিনহো ও সাদিও মানে। ম্যাচ শেষে তখন দর্শকশূন্য অ্যানফিল্ডেই বুক চাপড়াচ্ছেন ক্লপ। ফুটবলারদের মুখেও চড়া হাসি। লিভারপুল তারকাদের শরীরীভাষায় পরিষ্কার যেন সবাই ইতিহাসের স্বাদ পাচ্ছিলেন। কিন্তু বৃহস্পতিবার চেলসির বিরুদ্ধে ম্যানচেস্টার সিটি হারতেই চ্যাম্পিয়ন হয়ে যায় ক্লপের লিভারপুল।
বছরের পর বছর প্রিমিয়ার লিগ জয়ের দৌড়ে থেকেও শেষমেশ লিভারপুলের জন্য বরাদ্দ থাকত একরাশ হতাশা ও যন্ত্রণা। এক সময় ইংলিশ লিগ আর লিভারপুল মানেই ছিল অবিচ্ছেদ্য এক প্রেমকাহিনি। বছরের পর বছর লিভারপুলই নিয়মিত চ্যাম্পিয়ন হত। তবে প্রিমিয়ার লিগ জমানা শুরু হওয়ার পর আর একবারও লিগ জিততে পারেনি লিভারপুল। বরং অসহায় ভাবে দেখতে হয়েছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড, চেলসি, ম্যানচেস্টার সিটির মতো ক্লাবেরা বছরের পর বছর শৃঙ্গে উঠছে। তবে ক্লপ কোচ হওয়ার পর থেকেই যেন সবকিছু পালটে যায়। লিভারপুল ভক্তদের কাছে ক্লপ ছিলেন হ্যামলিনের সেই বাঁশিওয়ালা। যিনি লিভারপুল কোচ হওয়ার পর কথা দিয়েছিলেন ক্লাবকে প্রিমিয়ার লিগ চ্যাম্পিয়ন করাই তার আসল লক্ষ্য। সেই কথাটাই রাখলেন ক্লপ।
খবর : সংবাদপ্রতিদিন’র।