সিনেমা হলে মুক্তি পাবে ’৮৩’ আর ‘সূর্যবংশী’!

0
199

সুপ্রভাত ডেস্ক :
সুরক্ষাবিধি মেনে সিনেমা-সিরিয়ালের শুটিং শুরু হয়ে গিয়েছে অনেকদিন আগেই। কলাকুশলীদের নিয়ে ব্রিটেনে ‘বেল বটম’-এর শুটিং করছেন অক্ষয় কুমার। ‘লাল সিং চাড্ডা’-র শুটিং করতে তুরস্কে পৌঁছে গিয়েছেন আমির খান। পরিবর্তিত পরিস্থিতিতে ওটিটি রিলিজের পথ বেছে নিয়েছেন একাধিক প্রযোজনা সংস্থা। অনলাইনে মুক্তি পেয়েছে ‘গুলাবো সিতাবো’, ‘শকুন্তলা দেবী’, ‘গুঞ্জন সাক্সেনা-দ্য কারগিল গার্ল’-এর মতো বড় প্রযোজনা সংস্থাগুলির সিনেমা। তাহলে কি এবার ‘সূর্যবংশী’, ‘৮৩’-র মতো সিনেমাও ডিজিটাল রিলিজের পথে হাঁটবে? এই প্রশ্ন বেশ কিছুদিন ধরে সোশ্যাল মিডিয়ায় তুলছিলেন চলচ্চিত্র অনুরাগীরা। সেই প্রশ্নের উত্তর দিল দুই ছবির প্রযোজনা সংস্থা রিলায়েন্স এন্টারটেনমেন্ট। রোববার এই বিষয়ে রিলায়েন্স এন্টারটেনমেন্টের পক্ষ থেকে বিবৃতি জারি করা হয়। বলা হয়, সময়ের সঙ্গে সঙ্গে পরিস্থিতির উন্নতি হবে এবং তা প্রেক্ষাগৃহ খোলার উপযুক্ত বলেই আমাদের বিশ্বাস। দিওয়ালিতে ‘সূর্যবংশী’ এবং বড়দিনে ‘৮৩’ মুক্তি পাবে।
২০১৯-এর ৭ অক্টোবর রণবীর সিং, দীপিকা পাড়–কোন অভিনীত ‘৮৩’র শুটিং শেষ হয়। ১০ এপ্রিল প্রেক্ষাগৃহে ছবিটির মুক্তি পাওয়ার কথা ছিল। করোনা পরিস্থিতির জন্য তা সম্ভব হয়নি। অক্ষয় কুমার, ক্যাটরিনা কাইফ অভিনীত ‘সূর্যবংশী’র শুটিং শেষ হয় ২০১৯-এর নভেম্বরে। মার্চ মাসে ছবিটির মুক্তি পাওয়ার কথা ছিল। শোনা গিয়েছে, আনলকের চতুর্থ পর্যায়ে শর্তসাপেক্ষে সিনেমা হলগুলি খুলতে পারে। জুলাই মাসের শেষের দিকেই শোনা গিয়েছিল যে, তথ্য সম্প্রচার মন্ত্রকের তরফে আগস্টেই সিনেমা হলের দরজা খোলার আবেদন জানানো হয়েছিল স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের কাছে। কিন্তু বাস্তবে তা কার্যকর হয়নি! আর সেই জন্যই এবার জিম, রেস্তরাঁ, শপিং মলের পর ‘আনলক ৪’-এ সামাজিক দূরত্ব বিধি মেনে দেশের সিঙ্গল স্ক্রিন সিনেমা হলগুলো খোলার কথাই চিন্তা-ভাবনা করা হচ্ছে। খবর : সংবাদপ্রতিদিন’র।