যাত্রামোহন সেনের সম্পদ রক্ষা করা সরকারের দায়িত্ব

0
98

বাসভবন পরিদর্শন শেষে ডা. শাহাদাত

‘যাত্রামোহন সেন (জে এম সেন) জাতীয় সম্পদ। ওনার সম্পদ রক্ষা করা সরকারের দায়িত্ব। যারা মুক্তিযুদ্ধের চেতনার কথা বলে তারাই মুক্তিযুদ্ধের পরে হিন্দুদের সম্পত্তি দখল করেছে। তারই ধারাবাহিকতায় আজকে আমরা দেখতে পাচ্ছি এই সরকারের আমলেই হিন্দুদের জায়গা দখলবাজরা দখল করেছে। ব্রিটিশবিরোধী আন্দোলনে যার ভূমিকা অনস্বীকার্য চন্দনাইশের কৃতিসন্তান যাত্রামোহন সেন। কিন্তু তার নিজস্ব পরিবারের সম্পত্তি দখল করে আত্মসাতের পাঁয়তারা চালাচ্ছে। বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বি এন পির পক্ষ থেকে সন্ত্রাসী অপকর্মের বিরুদ্ধে তীব্র নিন্দা, প্রতিবাদ, জ্ঞাপন করছি। অবিলম্বে জাতীয় সম্পদ যাত্রা মোহন সেন (জে এম সেন) এর সম্পত্তি রক্ষার জন্য সরকারের সংশ্লিষ্টদের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি।’
বুধবার সন্ধ্যায় নগর বিএনপির আহ্বায়ক ও চসিক নির্বাচনে বিএনপি মনোনীত মেয়র প্রার্থী ডা. শাহাদাত হোসেন যাত্রা মোহন সেন এর বাস ভবন পরিদর্শন শেষে প্রতিক্রিয়ায় এ কথা বলেন।
যাত্রামোহন সেনের বাড়ি পরিদর্শনে উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশ জাতীয় দলের কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটি প্রান্তিক জনশক্তি উন্নয়ন বিষয়ক সম্পাদক অর্পনা রায়, সার্বভৌমত্ব রক্ষা পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি সুভাষ চন্দ্র দাস, নারী ও শিশু অধিকার ফোরাম চট্টগ্রামের আহ্বায়ক সাংবাদিক জাহিদুল করিম কচি, নগর স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি এইচ এম রাশেদ খান, জাতীয়তাবাদী হিন্দু ছাত্র ফোরাম কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি রাজিব ধর তমাল, সাধারণ সম্পাদক সীমস্ত দাস, সাংগঠনিক সম্পাদক নিখিল চন্দ্র দাস প্রমুখ নেতৃবৃন্দ। বিজ্ঞপ্তি