ম্যারাডোনার মৃত্যু তদন্তে নতুন মোড়

0
41

সুপ্রভাত ক্রীড়া ডেস্ক :
যত দিন যাচ্ছে, আর্জেন্টাইন কিংবদন্তি দিয়েগো ম্যারাডোনার মৃত্যু তদন্ত নতুন দিকে মোড় নিচ্ছে। সম্প্রতি জানা গেছে, রাতে তার বিয়ারে ঘুমের ওষুধ মেশানো হত যাতে তিনি ঘুম থেকে উঠে বিরক্ত করতে না পারেন। এছাড়া নিষেধ থাকা সত্ত্বেও তাকে সকালে মদ্যপান করতে দেয়া হতো।
আর্জেন্টিনার তদন্তকারীদের সামনে এই বক্তব্য রেখেছেন মনোবিদ গ্রিসেলদা মোরেল। তিনি বলেছেন, ম্যারাডোনা সকালে উঠে বিয়ার চাইলে সেটা তাকে দেয়া হত। তার দেখাশোনার দায়িত্বে থাকা একজন বিয়ারে ঘুমের ওষুধ মিশিয়ে দিত যাতে উনি রাতে উঠে জ্বালাতন করতে না পারেন।
জানা গেছে, ডাক্তাররা বারণ করা সত্ত্বেও ম্যারাডোনাকে বিয়ার এবং ওয়াইন খেতে দেয়া হত। তার মানসিক অবস্থাও অত্যন্ত খারাপ অবস্থায় ছিল। মোরেল জানিয়েছেন, ম্যারাডোনার হাতে ফোন না থাকা সত্ত্বেও একদিন তাকে ফোনে কথা বলতে দেখেছেন।
মস্তিষ্কে অস্ত্রোপচারের পর ম্যারাডোনার ছেলে দিয়েগুইতোকে নিয়ে একদিন বুয়েনস আয়ার্সের বাড়িতে দেখা করতে গিয়েছিলেন মোরেল। তিনি বলেছেন, শেষবার দেখা হওয়ার পর দিয়েগো আমাকে অভিযোগ করেছিল যে বাথরুম উপরে হওয়ায় তার অসুবিধা হচ্ছে। তাকে নাকি হোস পাইপ দিয়ে স্নান করানো হচ্ছে। আরো বলেছিল, ওর থেকে টাকা চুরি করায় এক নার্সকে নাকি তাড়িয়ে দেয়া হয়েছে।
বাথরুম উপরে থাকার ব্যাপার বেশ পরে জানতে পেরেছিলেন ম্যারাডোনার মেয়ে। এরপরেই নিচের তলার একটি ঘরকে সাময়িকভাবে বাথরুম বানানো হয়। খবর : ডেইলিবাংলাদেশ’র।