মুক্তধ্বনি আবৃত্তি সংসদের আবৃত্তি সন্ধ্যা

0
78

‘২৪ জানুয়ারি ১৯৮৮ সালে চট্টগ্রামের লালদীঘির গণতন্ত্র রক্ষার ঐতিহাসিক সমাবেশে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যার উদ্দেশ্যে এলোপাতাড়ি গুলি চালিয়ে এদেশকে পাকিস্তান নির্ভর বাংলাদেশ বানাতে চেয়েছিল। তাতে আল্লাহর অশেষ কৃপায় আমাদের প্রাণের নেত্রী প্রাণে বেঁচে যান। এ সমাবেশে পুলিশি গুলিতে হাজার হাজার মানুষের মৃত্যু হয়। এটি আজ ঐতিহাসিক গণহত্যা দিবস হিসেবে পরিগণিত। আমরা সেই সব শহীদদের শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করি। স্মরণ করি চট্টলবীর বীর মুক্তিযোদ্ধা অ্যাডভোকেট শহিদুল হুদাকে যিনি চট্টগ্রামের একমাত্র সাহসী পুরুষ সে দিনের অন্যায়ের প্রতিবাদ স্বরূপ চট্টগ্রাম আদালতে এ গণহত্যার বিচারে মামলা দায়ের করেন। আজ আমরা এটিকে ঐতিহাসিক গণহত্যা মামলা হিসেবে জানি।’

উপরোক্ত কথাগুলো বলেন মুক্তধ্বনি আবৃত্তি সংসদ আয়োজিত ২৪ জানুয়ারি ঐতিহাসিক গণহত্যা দিবস উপলক্ষে আবৃত্তি সন্ধ্যায় ২২ জানুয়ারি ২০২১ শুক্রবার জেলা শিল্পকলা একাডেমিক মূল মিলনায়তনে জনস্বাস্থ্য বিষয়ক বিশেষজ্ঞ ডা. বিদুৎ বড়ুয়া।

মোহাম্মদ মছরুর হোসেনের সভাপতিত্বে এবং জাহিদ হোসেন রনির সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ আবৃত্তি সমন্বয় পরিষদের যুগ্ম সম্পাদক রাশেদ হাসান, অধ্যক্ষ আবদুল্লাহ ইবনে মাসুদ, বিকাশের মহাব্যবস্থাপক অজয় কর, মুক্তধ্বনির সহ সভাপতি খন্দকার আবু কাওসার,  এস এম সোলায়মান সবুজ। বিজ্ঞপ্তি

আবৃত্তি সন্ধ্যায় একক আবৃত্তি পরিবেশন করেন আমন্ত্রিত আবৃত্তি শিল্পী সৈয়দা সাজিদা স্নিগ্ধা, দেবাশীষ রুদ্র, সেলিম রেজা সাগর, সৈয়দা ফারজানা ইয়াসমিন ববি, মোহাম্মদ জাহিদ হোসেন রনি, মোহাম্মদ সেলিম ভূইয়া, নাসরিন তমা, ইশরাত জাহান, নাহিদা আকতার ঋতু, জামশেদ রাসেল, বিবি ফাতেমা। বিজ্ঞপ্তি