ভূমি জরিপ রেকর্ড গুরুত্বপূর্ণ : ভূমিমন্ত্রী

0
218

আনোয়ারায় ডিজিটাল ভূমি জরিপ উদ্বোধন

নিজস্ব প্রতিনিধি, আনোয়ারা
ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ বলেন, বঙ্গবন্ধুর কন্যা বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ আজ উন্নয়নশীল। জমি নিয়ে হানাহানি-মারামারি থেকে বাঁচতে ভূমি জরিপ রেকর্ড গুরুত্বপূর্ণ। সরকারি ভূমি জরিপ ও রেকর্ড অধিদপ্তরের কর্মকর্তাদের সহযোগিতা করে তাদের কাজকে আরো এগিয়ে নেওয়ার সুযোগ করে দিন। কেউ অবৈধভাবে অনের জমি দখলে রাখলে তার বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে। দল বা প্রভাবশালী কোনো ব্যক্তি মাস্তানি করে অন্যের জমি দখল করে রাখতে পারবে না। ভূমি দখলস্বত্ব আইন পরিবর্তন করে তা সংসদে পাশ করা হবে শীঘ্রই। দেশের মধ্যে যত বিরোধ হচ্ছে ভূমি নিয়ে। সবকিছুর পরিবর্তন আসবে। এমন একটি পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে যাতে ভূমি নিয়ে কারো কোনো হয়রানি বা হানাহানি করতে না হয়।
শনিবার দুপুরে আনোয়ারা উপজেলার রায়পুর-বারশত ইউনিয়নের ডিজিটাল ভূমি জরিপ উদ্বোধন ও পরিদর্শনকালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
উপজেলার রায়পুর ইউনিয়নের জেদ্দারহাট এলাকায় চট্টগ্রাম জোনাল সেটেলমেন্ট কর্মকর্তা মোহাম্মদ নজরুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন ভূমি রেকর্ড ও জরিপ অধিদপ্তরের পরিচালক (যুগ্ম সচিব) এটিএম নাসির মিয়া, অনলাইন ম্যানেজমেন্ট এন্ড সার্ভে সফটওয়্যারের উদ্বোধক মোহাম্মদ মুমিনুর রশীদ। এ সময়ে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান তৌহিদুল হক চৌধুরী, উপজেলা নির্বাহী অফিসার শেখ জোবায়ের আহমেদ, সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. তানভীর হাসান আহমেদ চৌধুরী, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অধ্যাপক এম এ মান্নান চৌধুরী, চট্টগ্রাম জেলা পরিষদের সদস্য এস এম আলমগীর চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক এম এ মালেক, কর্ণফুলী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হায়দার আলী রনি, ভূমিমন্ত্রীর একান্ত সচিব রিদোয়ানুল করিম চৌধুরী সায়েম, থানার অফিসার ইনচার্জ এস এম দিদারুল ইসলাম সিকদার, বারশত ইউপি চেয়ারম্যান এম এ কাইয়ূম শাহ, রায়পুর ইউপি চেয়ারম্যান জানে আলম, রায়পুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আমিন শরীফ, সাধারণ সম্পাদক নুরুল আজিজ চৌধুরীসহ আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবকলীগ, মহিলা আওয়ামী লীগ ও ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।
ভূমিমন্ত্রী আরো বলেন, বঙ্গবন্ধুর দেশে কোনো অপরাধীর ঠাঁই নেই। ভূমি অফিসে কোনো কর্মকর্তা-কর্মচারীর দুর্নীতি অনিয়মের জড়িত প্রমাণ পেলে নেওয়া হবে কঠোর ব্যবস্থা। মানুষের জন্য ভূমি সেবাকে আরো সহজ করা হবে। আনোয়ারা উপজেলায় আরো দুইটি ভূমি অফিস স্থাপন করা হবে। অনুষ্ঠান শেষে ভূমি জরিপ কাজ উদ্বোধন ও পরিদর্শন করেন ভূমিমন্ত্রী।