ভাগিনাকে কুপিয়ে জখম, মামা গ্রেফতার

0
200

নিজস্ব প্রতিনিধি, পটিয়া :

ভাগিনাকে নৃশংসভাবে কুপিয়ে জখমের ঘটনায় পটিয়া থানা পুলিশ মামা জুলফিকার আলম (৫৫) কে গ্রেফতার করেছে। তিনি পটিয়া পৌরসভার ৩ নম্বর ওয়ার্ডের সুচক্রদন্ডী গ্রামের ওয়াপদা রোডের মরহুম আবদুস সালামের পুত্র। তাকে গতকাল দুপুরে পটিয়া সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে পাঠানো হয়েছে। আগের দিন রাতে (সোমবার) পটিয়া থানার উপপরিদর্শক মো. বোরহানসহ একদল পুলিশ অভিযান চালিয়ে মামা জুলফিকারকে গ্রেফতার করে।

পুলিশ জানায়, জায়গার বিরোধ নিয়ে আপন ৩ মামাসহ সন্ত্রাসীরা দুই ভাগিনা ইমরানুল হক (২২) ও মো. মামুন (২৮) কে কুপিয়ে মারাত্মকভাবে জখম করে। বর্তমানে মামুন আইসিইউতে মৃত্যুর সঙ্গে লড়ছেন। ঘটনার পর ভাগিনার পক্ষে শফিকুল আলম প্রকাশ বশর বাদি হয়ে পটিয়া সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলা করেন। মামলার আসামিরা হলেন জুলফিকার আলম (৫৫), মো. নুরুল আলম (৫২), আবদুল আলীম (৫০), রিদয়ানুল হক প্রকাশ পাবেল (১৯), মো. রেজোয়ানুল হক প্রকাশ রুবেল (২২), আতিকুর রহমান (২০), ইফতেখার (২২), ঈদনান আলম (১৯), মো. ফাহিম (২৫), আবদুল মাবুদ (৬৫)।

মামলার বাদি শফিকুল আলম বশর জানিয়েছেন, আসামিরা মামলাটি তুলে নেয়ার জন্য ভয়ভীতি ও হুমকি দিচ্ছে। তাদের ভয়ে বাদির লোকজন বাড়িছাড়া।

পটিয়া থানার উপপরিদর্শক মো. বোরহান উদ্দিন জানিয়েছেন, ভাগিনাকে কুপিয়ে জখমের ঘটনায় মামা জুলফিকারকে গ্রেফতার করে আদালতে পাঠানো হয়েছে। অন্য আসামিদের গ্রেফতারের  চেষ্টা চলছে।