বন্ধুত্ব করে অপহরণ দুই যুবক গ্রেফতার 

0
249
নিজস্ব প্রতিবেদক :
বন্ধুত্ব করে এক ট্রাক চালককে অপহরণের অভিযোগে দুই যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গ্রেফতার ব্যক্তিরা হলেন- হোটেল কর্মচারী মিলন চাকমা প্রকাশ ঋতু (২৬) ও চিং থোয়াই মারমা (২৯)। এরমধ্যে মিলন চাকমার বাড়ি খাগড়াছড়ি পার্বত্যজেলার মানিকছড়ি ও চিং থোয়াই মারমার বাড়ি পানছড়ি এলাকায়।
গত শুক্রবার রাতে ভুজপুর এলাকার গহীন পাহাড়ে অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করা হয়। একইসময় অপহরণের শিকার মামুন হোসেন নামের যুবককে উদ্ধার করেছে নগরের  সদরঘাট থানা পুলিশের একটি টিম। মো. মামুন হোসেন কুমিল্লা জেলার চৌদ্দগ্রাম উপজেলার নারায়নপুরী গ্রামের মো. আবুল কালামের ছেলে। তিনি থাকেন নগরের সদরঘাট থানার পশ্চিম মাদারবাড়ি এলাকায়।
পুলিশ জানায়, চার মাস আগে মামুনের সাথে বন্ধুত্ব স্থাপন করেন মিলন চাকমা প্রকাশ ঋতু ও চিং থোয়াই। করোনাকালে চাকুরি হারানোর কথা বললে  নিজের ট্রাকে ঋতুকে হেলপারের চাকুরি দেন মামুন।
বেড়ানোর কথা বলে গত ২০ জুলাই রাত ৮টার দিকে কদমতলী বাসস্ট্যান্ড থেকে মামুন,  মিলন চাকমা ও চিং থোয়াই খাগড়াছড়ির উদ্দেশ্যে রওয়ানা দেন। ওইদিন রাতেই মামুনকে  ফটিকছড়ির গহীন পাহাড়ে নিয়ে আটকে রাখেন তারা।  পরের দিন (২১ জুলাই) দুপুরের দিকে মামুনের ব্যবহৃত মোবাইল থেকে
 তার ছোট ভাই ইকবালের কাছে ২০ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে বসে ঋতু ও চিং থোয়াই।
 এরপর মামুনের ভাই সাইফুল ইসলাম বিষয়টি সদরঘাট পুলিশকে জানালে থানার ওসি ফজলুর রহমান ফারুকী ভিকটিমকে উদ্ধারে অভিযানে নামেন। ভিকটিমের মোবাইল নম্বর ও অবস্থান শনাক্ত করে ভুজপুর গহিন পাহাড় থেকে ঋতু ও চিং থোয়াই গ্রেফতারের পাশাপাশি মামুনকে উদ্ধার করে পুলিশ।
ঘটনাস্থল থেকে অপহরণকারীর কাছ থেকে একটি আগ্নেয়াস্ত্রও উদ্ধার করা হয়েছে । প্রথমে ফটিকছড়ি থানায় অস্ত্র আইনে মামলার পাশাপাশি সদরঘাট থানায় অপহরণ ও মুক্তিপণ দাবির অভিযোগে মিলন চাকমা ও চিং থোয়াই মারমার বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে।