‘ফুটবলারদের অগ্রাধিকার তালিকায় রাখা উচিত নয়’

0
56

সুপ্রভাত ক্রীড়া ডেস্ক :
স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে থাকা সাধারণ মানুষ এবং স্বাস্থ্য কর্মীদের বাদ দিয়ে, ফুটবলারদের করোনা ভ্যাকসিনের অগ্রাধিকার তলিকায় রাখা উচিত হবে না বলে মনে করেন ফিফা প্রেসিডেন্ট জিয়ান্নি ইনফান্তিনো। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার সঙ্গে, সুর মিলিয়ে বিশ্বজুড়ে ভ্যাকসিনের সঠিক বন্টনের দিকে জোর দিয়েছেন তিনিও।
করোনা ভাইরাসের হাত থেকে মানবসভ্যতাকে বাঁচাতে চলে এসেছে ভ্যাকসিন। পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে এরমধ্যে মানব দেহে তা প্রয়োগ শুরু হয়ে গেছে। তবে, ভ্যাকসিন নিয়ে চলছে দেশে দেশে রাজনীতি। এর বন্টন ব্যবস্থা নিয়ে শুরু হয়েছে বিভিন্ন আলোচনা-সমালোচনা।
অগ্রাধিকার তালিকায়, স্বাস্থ্য কর্মী এবং সাধারণ মানুষদের থাকার কথা থাকলেও, ফুটবলার-ক্রিকেটারসহ বিভিন্ন ডিসিপি¬নের অ্যাথলিটদের নিয়ে মাতামাতি চলছে সব জায়গায়।
বিষয়টিকে খুব একটা ভালো চোখে দেখছেনা বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। দেশগুলোর অগ্রাধিকারভিত্তিতে করা তালিকা নিয়ে আপত্তি তুলেছে তারা।
এবার হু’র সেই আলোচনাতে যোগ দিয়ে, একই মত প্রকাশ করলেন বিশ্ব ফুটবলের নিয়ন্ত্রক সংস্থা, ফিফার প্রেসিডেন্ট জিয়ান্নি ইনফান্তিনো। কোন অবস্থাতেই সাধারণ মানুষের আগে অ্যাথলিটদের অগ্রাধিকার তালিকায় রাখা উচিত নয় বলে মন্তব্য তার।
জিয়ান্নি ইনফান্তিনো বলেন, দেখুন এখন সবচেয়ে বেশি ঝুঁকিতে যারা আছে তাদেরকে বাদ দিয়ে ফুটবলারদের নিয়ে আলোচনার কোন অর্থ হয় না। স্বাস্থ্য কর্মী এবং সাধারণ মানুষদেরকেই সবার শুরুতে দেয়া উচিত। আমি জানি, সামনে অনেক অনেক টুর্নামেন্ট অপেক্ষা করছে, তার আগে অবশ্যই সবাইকে ভ্যাকসিনের আওতায় আনতে হবে। তবে, সেটা কখনই মূল অগ্রাধিকার হতে পারে না। মানুষের জীবনের চেয়ে কোন ক্রীড়া ইভেন্ট বড় হতে পারে না।
কাতার বিশ্বকাপের এখনো বাকি এক বছরের চেয়েও বেশি সময়। এর মধ্যেই ক্রীড়া বিশ্ব কোভিড ভয়াবহতা কাটিয়ে উঠবে বলেও মনে করেন ফিফা বস। তার বিশ্বাস, কাতারের প্রতিটি স্টেডিয়াম ভর্তি থাকবে দর্শক-সমর্থকদের উল¬াসে।
তিনি বলেন, প্রতিটি স্টেডিয়াম দর্শকে পরিপূর্ণ থাকবে। ২০২২ এর শেষ দিকে হবে আসরটি। এর মধ্যে আমরা সব সমস্যা উৎরে যাবো। আর নয়তো সমস্যার মধ্যে বেঁচে থাকার কৌশল আয়ত্ত্ব করে ফেলবো। আমি দুর্দান্ত একটা বিশ্বকাপের অপেক্ষায় আছি। খবর : ডেইলিবাংলাদেশ’র।