পাকিস্তান ফুটবল ফেডারেশনের উপর নিষেধাজ্ঞা ফিফার

0
33

সুপ্রভাত ক্রীড়া ডেস্ক :
বিপাকে পাকিস্তান ফুটবল ফেডারেশন বা পিএফএফ। পাক ফুটবল সংস্থার ব্যবস্থাপনায় তৃতীয় পক্ষ হস্তক্ষেপ করায় বিশ্ব ফুটবলের সর্বোচ্চ নিয়ামক সংস্থা ফিফার রোষানলে পড়ল তারা। নির্দেশিকা জারি করে সেদেশের ফুটবল ফেডারেশনের উপর নিষেধাজ্ঞা জারির কথা জানানো হয়েছে ফিফার পক্ষ থেকে। পাশাপাশি এদিন থেকেই তা জরুরিভিত্তিতে কার্যকর করার নির্দেশও দেওয়া হয়েছে। তবে কতদিন পর্যন্ত এই নিষেধাজ্ঞা জারি থাকবে, তা জানানো হয়নি। এর ফলে আগামিদিনে আন্তর্জাতিক কোনও টুর্নামেন্টেই অংশ নিতে পারবেন না পাক জাতীয় দল কিংবা সেদেশের কোনও ক্লাব।
বিগত বহুদিন ধরেই পাক ফুটবল ফেডারেশনকে তৃতীয় পক্ষের হস্তক্ষেপ করার ব্যাপারে সাবধান করা হয়েছিল ফিফার পক্ষ থেকে। তবে সম্প্রতি পরিস্থিতি আরও খারাপ হয়। পিএফএফ-এর অফিসের দায়িত্বভার নিজেদের হাতে তুলে নেয় একদল বিক্ষোভকারী। এমনকী ফিফার তৈরি করে দেওয়া কমিটির হাত থেকেও ক্ষমতা কেড়ে নেওয়া হয়। এরপরই বিশ্ব ফুটবলের সর্বোচ্চ নিয়ামক সংস্থা এই সিদ্ধান্ত নিল।
বিবৃতিতে ফিফার পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, ‘সম্প্রতি লাহোরে পিএফএফের সদর দপ্তরের নিয়ন্ত্রণ একদল বিক্ষোভকারীদের হাতে চলে গিয়েছে। ফিফার তরফ থেকে নির্বাচিত হারুন মালিকের নেতৃত্বাধীন নর্মালাইজেশন কমিটির হাত থেকে ক্ষমতা সৈয়দ আসফাক হুসেইন শাহের হাতে চলে গিয়েছে। এর আগেও পাকিস্তানকে চিঠি দিয়ে সে ব্যাপারে সাবধান করা হয়েছিল। আপাতত যতক্ষণ না পুনরায় ক্ষমতা ফিফা নির্ধারিত নর্মালাইজেশন কমিটির হাতে হস্তান্তর হচ্ছে, ততদিন এই নিষেধাজ্ঞা জারি থাকবে।’ তবে এই প্রথম নয়, এর আগেও ফিফার কোপে মুখে পড়েছিল পাকিস্তান ফুটবল ফেডারেশন। একই কারণে ২০১৭ সালের অক্টোবর মাস থেকে ২০১৮ সালের মার্চ পর্যন্ত নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছিল। পরবর্তীতে ফিফা কমিটি তৈরি করে দেওয়ার পরই নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়া হয়।