পটিয়ায় যৌতুক মামলায় এক ব্যক্তির ২ বছর কারাদণ্ড

0
138

নিজস্ব প্রতিনিধি, পটিয়া :
যৌতুকের মামলায় পটিয়ায় ওমর ফারুক (৩৩) নামের এক ব্যক্তির দুই বছরের কারাদণ্ড হয়েছে। গতকাল রোববার পটিয়া জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট বিশ্বেশ্বর সিংহের আদালতে এ রায় প্রদান করা হয়। এছাড়া আসামিকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা ও অনাদায়ে আরো ২ মাস কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে।
ফারুক উপজেলার বড়লিয়া ইউনিয়নের বাড়ৈকারা গ্রামের নাহিদা আকতারের স্বামী।
জানা গেছে, উপজেলার বড়লিয়া ইউনিয়নের বাড়ৈকারা গ্রামের মৃত আলী আহমদের পুত্র ওমর ফারুকের সঙ্গে একই উপজেলার ধলঘাট ইউনিয়নের ঈশ্বরখাইন গ্রামের মুছা চৌধুরীর কন্যা নাহিদা আকতারের বিয়ে হয়। ২০১৬ সালে বিয়ের পর থেকে প্রায় সময় ফারুক যৌতুকের জন্য তার স্ত্রীকে মারধর ও বিভিন্নভাবে নির্যাতন করতো। বিভিন্ন সময় দাবিকৃত যৌতুকের টাকাও দেয়া হয়। এরপর ২০১৮ সালে ব্যবসা করার অজুহাদে ১০ লাখ টাকা দাবি করে ফারুক। এ টাকা দিতে না পারায় নাহিদাকে মারধর করে ঘর থেকে বের করে দেয় সে।
এরপর পটিয়া সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে যৌতুক আইনে একটি মামলা করেন নাহিদা।
বাদীর আইনজীবী মো. ফোরকান জানান, যৌতুকের মামলায় আসামি ওমর ফারুককে বিজ্ঞ বিচারক ২ বছরের কারাদণ্ড দিয়ে চট্টগ্রাম কারাগারে প্রেরণ করেছে।