ধোনির নামে ওয়াংখেড়ের চেয়ার নামাঙ্কিত করার দাবি

0
163

সুপ্রভাত ক্রীড়া ডেস্ক :
বিশ্বকাপজয়ী এই শটটি সোশাল মিডিয়ায় প্রচুর শেয়ার হয়। এটি এমন একটি শট যা ধোনির অর্জনের সমস্ত কিছুর প্রতিশব্দ হয়ে দাঁড়িয়েছে। ওয়াংখেড়েতে ২০১১ সালের ফাইনালে শ্রীলঙ্কার বোলার নুয়ান কুলশেখরার ডেলিভারি গ্যালারিতে পাঠিয়ে দেশকে দ্বিতীয়বার বিশ্বকাপ এনে দিয়েছেন মহেন্দ্র সিংহ ধোনি। ধোনির হাঁকানো ছক্কাটি আছড়ে পড়েছিল ওয়াংখেড়ের যে চেয়ারটিতে, সেটাকেই তার নামে নামাঙ্কিত করার দাবি উঠল।
মুম্বই ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশনের (এমসিএ) অ্যাপেক্স কাউন্সিলের সদস্য অজিঙ্কা নায়েক এই প্রস্তাব নিয়ে এমসিএকে একটি চিঠি লিখেছেন, যাতে তিনি লেখেন, ‘ভারতীয় ক্রিকেটে মহেন্দ্র সিং ধোনির অপরিসীম অবদানের জন্য কৃতজ্ঞতা ও শ্রদ্ধা জানার জন্য, এমসিএ তার নাম স্থায়ীভাবে আসনটি দখল করতে পারে যেখানে তার বিখ্যাত বিশ্বকাপজয়ী ছক্কাটি এসে পড়েছিল।’
১৫ আগস্ট ধোনির অবসরের হঠাৎ সিদ্ধান্তের পর এমন দাবি ওঠে। মুম্বই ক্রিকেট সংস্থার অ্যাপেক্স কাউন্সিলের সদস্য অজিঙ্কা নায়েক এমসিএকে এমন দাবি জানিয়ে চিঠি দিয়েছেন। ভারতীয় ক্রিকেটে ধোনির অবদানের কথা মাথায় রেখে ওই চেয়ারটিকে তার নামে যাতে নামাঙ্কিত করা হয়। এমসিএর পরবর্তী সভায় এই নিয়ে আলোচনা হবে বলে জানা গিয়েছে।
ভারতের কোনও খেলোয়াড়ের নামকরণ করা এভাবে না-হলেও বিদেশে এমন সিট নামাঙ্কিত করে রাখার নজির রয়েছে। ভারতে স্টেডিয়ামের স্ট্যান্ড নামাঙ্কিত রয়েছে বিখ্যাত ভারতীয় ক্রিকেটারদের নামে। কিন্তু চেয়ার চিরকালের জন্য কারওর নামে নামাঙ্কিত করা হয়নি এখনও পর্যন্ত।
১৯৯৩ সালে মেলবোর্ন ক্রিকেট গ্রাউন্ডে, গ্রেট সাউদার্ন স্ট্যান্ডের একটি আসনটি নিউ সাউথ ওয়েলসের ওপরে ভিক্টোরিয়ার হয়ে সাইমন ও’ডোনেলের ১২২ মিটার ছয় স্মরণে হলুদ রঙ করা হয়েছে। ২০১৮ সালে, মেলবোর্নের স্টেডিয়াম বিগ ব্যাশ লিগের ফ্র্যাঞ্চাইজি মেলবোর্ন রেনেগডের ব্র্যাড হজকে সম্মান জানাতে তৃতীয় স্তরের আসনটি আঁকেন। যিনি অবসর নেওয়ার আগে তার শেষ ম্যাচটিতে ৯ মিটার ছক্কা হাঁকিয়েছিলেন।
ধোনির অবদানের কথা স্মরণ করে ওয়াংখেড়ের সেই চেয়ারটি যদি প্রাক্তন ভারত অধিনায়কের নামে করা হয়, তাহলে বিশ্বজয়ী অধিনায়ককে শ্রদ্ধা জানানো হবে এক নতুন ভাবে। অর্থাৎ চেনা ছকের বাইরে গিয়ে। যা বরাবরের পছন্দ মহেন্দ্র সিং ধোনির। খবর : কলকাতাটোয়েন্টিফোর’র।