দ্রাবিড়কে ‘উপহার’ বিহারী-অশ্বিনের

0
81

সুপ্রভাত ক্রীড়া ডেস্ক :
‘দ্য ওয়াল’-এর জন্মদিনে ভারতীয় ক্রিকেটের তরফে এর থেকে ভালো ‘উপহার’ কী হতে পারত! গতকাল ৪৮ বছরে পা-দিলেন কিংবদন্তি রাহুল দ্রাবিড়। ক্রিকেটবিশ্বে যিনি ‘দ্য ওয়াল’ নামে পরিচিত। এদিনই এসসিজি-তে তিন ঘণ্টার বেশি ব্যাটিং করে সিডনি টেস্ট ড্র করলেন হনুমা বিহারী ও রবিচন্দ্রন অশ্বিন।
এদিন টিভি-র পর্দায় সিডনি টেস্টের দিকে চোখ রেখে নিশ্চয় নিজের ক্রিকেটীয় দিনগুলিতে ফিরে গিয়েছিলেন রাহুল! লড়াকু হাফ-সেঞ্চুরি করে চেতেশ্বর পূজারা যখন জোস হ্যাজলউডের বলে বোল্ড হয়ে প্যাভিলিয়নের দিকে হাঁটা লাগান, তখনও সিডনি টেস্টে ৪৪ ওভার বাকি ছিল। আর অজিদের মুখে ছিল চওড়া হাসি। কারণ ৪০৭ রান তাড়া করতে নেমে ভারতের স্কোর তখন পাঁচ উইকেটে ২৭২। ক্রিজে তখন চোট পাওয়া বিহারী। ব্যাট হাতে ক্রিজে এলেন অশ্বিন। আর ড্রেসিংরুমে পেনকিলার ইঞ্জেকশন নিয়ে অপেক্ষা করছেন রবীন্দ্র জাডেজা এবং দুই টেলেন্ডার জসপ্রীত বুমরাহ ও নভদীপ সাইনি।
কিন্তু তারপর এসসিজি-র বাইশ গজে যা ঘটল তা বিরল বললেও কম বলা হবে। এক মিডার-অর্ডার ব্যাটসম্যান এক বোলারকে নিয়ে খেলে গেলেন ৪৩ ওভার। অজি বোলারদের হতাশ করে সিডনি টেস্ট ড্র করলেন বিহারী ও অশ্বিন। শরীরের সর্বাঙ্গে আঘাত পেয়েও দাপটে ব্যাটিং করে গেলেন ভারতীয় অফ-স্পিনার। আর চলতি সিরিজে অফ-ফর্মে থাকা বিহারী এখনও পর্যন্ত তার জীবনের সেরা ইনিংস খেললেন।
ষষ্ঠ উইকেটে বিহারী ও অশ্বিনের অবিভিক্ত পার্টনারশিপ ৬২ রানের। কিন্তু খেলেন ২৫৯ বল। ১৬১ বল খেলে ২৩ রান করেন বিহারী এবং ১২৮ বলে ৩৯ রান করেন অশ্বিন। রানের দিক থেকে এই জুটি ভারতীয় ক্রিকেটে মূল্যবান না-হলেও সময়ের দিক থেকে বহু মূল্যবান।
এদিন ম্যাচের শুরুটা ভালো হয়নি ভারতের। দু’ উইকেটে ৯৮ রান নিয়ে খেলতে নেমে মাত্র ৪ রান যোগ করেই ক্যাপ্টেন অজিঙ্ক রাহানের উইকেট হারায় ভারত। আগের দিনের স্কোরেই ব্যক্তিগত ৪ রানে লায়নের বলে ম্যাথু ওয়েডের হাতে ক্যাচ দিয়ে প্যাভিলিয়নে ফেরেন ভারত অধিনায়ক। কিন্তু সেখান থেকে দলকে টেনে তোলেন পূজারা ও পন্তের দুরন্ত লড়াই। চতুর্থ উইকেটে ১৪৮ রান যোগ করেন পূজারা ও পন্ত। ১১৮ বলে ৯৭ রানে দুরন্ত ইনিংস খেলেন পন্ত। পূজারা ও পন্ত যখন ভারতের জয়ের স্বপ্ন দেখাছিলেন, ঠিক তখনই অ্যাটাকিং পন্তকে তুলে নিয়ে টিম ইন্ডিয়াকে ধাক্কা দেন নাথান লায়ন।
পন্ত আউট হওয়ার পর ফের চাপে পড়ে ভারত। নতুন বলে অজি বোলারদের বিরুদ্ধে লড়াই করেন পূজারা ও হনুমা বিহারী। কিন্তু ব্যক্তিগত ৭৭ রানে দুরন্ত এক ডেলিভারিতে পূজারার স্টাম্প ছিটকে দেন হ্যাজেলউড। তারপরে ব্যাট হাতে বিহারী ও অশ্বিন যা করলেন তা ইতিহাস।