‘জিয়ার মৃত্যুর তদন্তে সিবিআইকে বাধা দিতেন সালমান’

0
226

সুপ্রভাত ডেস্ক :
অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুতে তোলপাড় চলছে গোটা দেশে। অভিযোগ উঠেছে স্বজনপোষণের শিকার হয়েছেন অভিনেতা। বলিউড শুধু স্টারকিডদের পাত্তা দেয়। এক আগে অনেকেই এমন অভিযোগ তুলেছেন। কিন্তু সুশান্তের মৃত্যু যেন তার ক্রুরতা আরও বেশি করে সামনে এনে দিল। কয়েক বছর আগে তারই মতো আত্মহত্যা করেছিলেন অভিনেত্রী জিয়া খান। যদিও জিয়ার কারণ ছিল সম্পূর্ণ ব্যক্তিগত। তবুও স্বজনপোষণের ঘটনা এক্ষেত্রেও ছিল। এমনটাই জানিয়েছেন জিয়ার মা রাবিয়া।
প্রয়াত অভিনেত্রী জিয়া খানের মা রাবিয়া সুশান্তের মৃত্যুতে শোকবার্তা জানিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি পোস্ট করেছেন। সেখানে সালমান খানের বিরুদ্ধে সরাসরি অভিযোগ তুলেছেন তিনি। বলেছেন, ২০১৩ সালে মাত্র ২৫ বছর বয়সে আত্মহত্যা করেন জিয়া। অভিনেত্রীর মৃত্যুর জন্য তার প্রেমিক সুরজ পাঞ্চোলির বিরুদ্ধে আত্মহত্যায় প্ররোচণা দেওয়ার করার অভিযোগ ওঠে। এই ঘটনার দু’বছর পর, ২০১৫ সালে তিনি যখন লন্ডনে ছিলেন, তাকে ভারতে ডেকে পাঠানো হয়। ডেকেছিলেন এক সিবিআই অফিসার। তিনি রাবিয়াকে জানান, সালমান খানের কাছ থেকে ক্রমাগত হুমকি ফোন পাচ্ছিলেন তিনি। তাকে বারবার ফোন করে সালমান বলতেন সুরজকে যেন হেনস্তা না করা হয়। এমনকি সুরজে জেরা না করার কথাও বলতেন সালমান।
লন্ডন থেকে রাবিয়াকে যখন ওই অফিসার ডেকে পাঠান, তখন তিনি কিছু বিভ্রান্তিকর প্রমাণের কথা বলেছিলেন। এরপর ভারতে আসেন রাবিয়া। তার সঙ্গে দেখা করেন। তখনই তিনি বলেন, ‘সালমান খান আমাকে ফোন করেছিলেন। তিনি আমাকে রোজ ফোন করেন। বারবার বলেন, তিনি প্রচুর অর্থ বিনিয়োগ করেছেন। ওই ছেলেটিকে যেন কোনওভাবে হেনস্তা না করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদ না করার কথাও বলেন। আমরা কী করতে পারি ম্যাডাম?’
জিয়ার মা জানিয়েছেন, তিনি বিষয়টি নিয়ে দিল্লিতে সিবিআইয়ের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাদের কাছে অভিযোগ করেছেন। রাবিয়া বলেছেন, ‘যদি তদন্ত চাপা দেওয়ার জন্য টাকা আর ক্ষমতার ব্যবহার করা হয়, তবে সাধারণ নাগরিককা কোথায় যাবে? আমি বলতে চাই, আমাদের সবাইকে একসঙ্গে প্রতিবাদ করতে হবে। বলিউডে এই বিষাক্ত আচরণ বন্ধ করতে হবে। বলিউডের পালটানো দরকার। বুলিংয়ের জন্য বলিউড ধ্বংস হয়ে গেয়েছে। একে জাগাতে হবে।’
খবর : সংবাদপ্রতিদিন’র।