কেন্দ্র দখলের আশঙ্কা বিএনপির

0
77

মাটিরাঙা পৌর নির্বাচন উপলক্ষে সংবাদ সম্মেলন
নিজস্ব প্রতিবেদক, খাগড়াছড়ি :
মাটিরাঙা পৌরসভা নির্বাচনে সরকার দলীয় প্রার্থীর পক্ষে সাধারণ ভোটারদের ভয়ভীতি প্রদর্শন ও কেন্দ্র দখলের পরিকল্পনার অভিযোগ করেছেন বিএনপি মনোনীত মেয়র প্রার্থী মো. শাহ জালাল কাজল।
নির্বাচনকে প্রভাবিত করতে আওয়ামী লীগ মনোভাবাপন্ন প্রিসাইডিং অফিসার ও পোলিং অফিসার নিয়োগ করা হয়েছে বলে অভিযোগ করে বিএনপি মনোনীত প্রার্থী মো. শাহ জালাল কাজল বলেন, ইতিমধ্যে রিটার্নিং অফিসার বরাবরে তাদের প্রত্যাহারের আবেদন করেছি।
শুক্রবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে মাটিরাঙা পৌরসভা নির্বাচনকে সামনে রেখে মাটিরাঙা উপজেলা বিএনপির কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব অভিযোগ করেন।
সংবাদ সম্মেলনে খাগড়াছড়ি জেলা বিএনপির সভাপিত ও সাবেক সংসদ সদস্য ওয়াদুদ ভুইয়া, খাগড়াছড়ি জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক এমএন আফসার, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট আব্দুল মালেক মিন্টু, মো. মোশাররফ হোসেন, মাটিরাঙা উপজেলা বিএনপির সভাপতি বাহাদুর খান, সহ-সভাপতি ললিত বিকাশ ত্রিপুরা, সাধারণ সম্পাদক মো. বদিউল আলম, বিএনপি মনোনীত প্রার্থী মো. শাহ জালাল কাজল, মাটিরাঙা উপজেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক মো. জিয়াউপর রহমান ও মাটিরাঙা পৌর বিএনপির সভাপতি মো. বাদশা মিয়া প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
খাগড়াছড়ি জেলা বিএনপির সভাপতি ও সাবেক সংসদ সদস্য ওয়াদুদ ভুইয়া নির্বাচনের দিন কেন্দ্র দখলের আশঙ্কা করে বলেন, ভোটের আগের রাতে বিএনপির পোলিং এজেন্ট ও বিএনপির নেতাকর্মীদের বাড়ি-ঘরে হামলার প্রস্তুতি নিয়েছে শাসকদল মনোনীত প্রার্থী মো. শামছুল হক। তারই অংশ হিসেবে বিভিন্ন উপজেলা ও ইউনিয়ন থেকে বহিরাগতদের মাটিরাঙা পৌরসভার সীমান্তবর্তী এলাকায় জড়ো করা হচ্ছে। তাছাড়া ইতিমধ্যে বিভিন্ন স্থানে বিএনপির নেতা কর্মীদের শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করারও অভিযোগ করেন তিনি।
২০১৫ সালের পৌর নির্বাচনের দিন ভোট কেন্দ্রে যাওয়ার পথে ভোটারদের উপর হামলা ও মারধরের অভিযোগ করে ওয়াদুদ ভুইয়া বলেন, এবারের নির্বাচনে তার পুনরাবৃত্তি করার ষড়যন্ত্র করছে শাসকদল। তিনি যেন তেন নয়, একটি অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন উপহার দিতে নির্বাচন কমিশনের প্রতি আহ্বান জানান।