উখিয়ায় পিতা-মাতার পর ভাইকে খুন

0
280

নিজস্ব প্রতিবেদক, কক্সবাজার :

উখিয়া উপজেলার হলদিয়াপালং ইউনিয়নের রুমখা গ্রামে জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে আপন বড় ভাইয়ের হাতে নৃশংসভাবে খুন হয়েছেন ছোট ভাই। গতকাল শনিবার বেলা ১২টার দিকে এ খুনের ঘটনা ঘটে। নিহত রায়হান (২৭) মৃত নুরুল কবিরের ছোট ছেলে।
নিহতের পরিবার সূত্রে জানা যায়, শনিবার সকালে বড় ভাইয়ের সাথে ছোট ভাইয়ের জমি-জমার কাগজপত্র নিয়ে কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে বড় ভাই ওষুধ কোম্পানিতে চাকরিরত মোর্শেদ কবির রিপন (৪২) আচমকা কিরিচ দা নিয়ে ছুটে এসে ছোট ভাই রায়হান কবিরকে (২৭) এলোপাতাড়ি কুপিয়ে জখম করে। গুরুতর আহত অবস্থায় কক্সবাজার সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। ছোট ভাইও একটি ওষুধ কোম্পানিতে ডেলিভারি ম্যান হিসেবে কর্মরত ছিলেন।
ঘটনার সময় নিহত রায়হান ও তার পরিবারবর্গের চিৎকারে এলাকাবাসী এগিয়ে আসলে ঘাতক মোর্শেদ ঘটনাস্থল থেকে পালাতে পারেননি। ঘটনার খবর পেয়ে উখিয়া থানা পুলিশের একটি দল নিহতের বাড়ি থেকে মোর্শেদ কবির ও তার স্ত্রী খুরশিদা বেগমকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়।
নিহত রায়হানের স্ত্রী রেনুয়ারা বেগম জানান, দীর্ঘদিন ধরে ভাইদের মধ্যে জমি জমা সংক্রান্ত বিরোধ চলে আসছিল। হঠাৎ করে এমন একটি অপ্রত্যাশিত ঘটনা ঘটবে আমাদের কারো জানা ছিল না।
বাবা-মায়ের খুনিও
বিগত ২০১৭ সালের দিকে মোর্শেদ কবির গলা টিপে হত্যা করেন তার বাবা নুরুল কবিরকে। এ ঘটনার পর তিনি জেল খেটে জামিনে মুক্তি পান। অপরদিকে ২০১৮ সালের নাগাদ মাথায় ইটের আঘাত দিয়ে খুন করেন তার মা নুর মহলকে। এ ঘটনার পর পরই তিনি জেলে যান। কিছুদিন আগে জামিনে মুক্ত হন। ২০২০ সালে এসে তার আপন ছোট ভাই রায়হান কবিরকে কিরিচ দিয়ে কুপিয়ে খুন করে।
এ প্রসঙ্গে উখিয়া থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মর্জিনা আক্তার সাংবাদিকদের জানান, ঘটনার সাথে সাথেই আমরা অভিযান চালাই। অভিযানে ঘাতক মোর্শেদ কবির ও তার স্ত্রী খুরশিদা বেগমকে আটক করে থানায় নিয়ে আসি।
এলাকাবাসীর বরাত দিয়ে তিনি আরও জানান, খুনি মোর্শেদ ইতিপূর্বে তার বাবা নুরুল কবিরকে ও তার মা নুর মহলকে খুন করেন। তিনি এতদিন জামিনে ছিলেন।