দীঘিনালায় বসতবাড়িতে সন্ত্রাসীদের ব্রাশ ফায়ার

0
155
দীঘিনালায় উদ্ধারকৃত গুলির খোসা-সুপ্রভাত
৫৯ রাউন্ড গুলির খোসা উদ্ধার

নিজস্ব প্রতিনিধি, দীঘিনালা :

দীঘিনালায় এমএন লারমা সমর্থিত জেএসএস কর্মীর বাড়িতে সশস্ত্র হামলা করেছে সন্ত্রাসীরা। মঙ্গলবার মধ্যরাতে উপজেলার নরেল্দু কার্বারী পাড়া এলাকায় এঘটনা ঘটে। সন্ত্রাসীরা সালমান ত্রিপুরার বসতঘর লক্ষ্য করে শতাধিক রাউন্ড ব্রাশ ফায়ার করে। এ ঘটনায় কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি।

ঘটনাস্থল থেকে দীঘিনালা থানার পুলিশ ৫৯ রাউন্ড গুলির খোসা উদ্ধার করে। এ ব্যাপারে এমএন লারমা সমর্থিত জেএসএস পক্ষ সন্তু লারমা সমর্থিত জেএসএসকে দায়ী করে।

জানা যায়,  মঙ্গলবার রাত দেড়টায় ২০/২৫ জনের সশস্ত্র সন্ত্রাসী প্রবীণ ত্রিপুরা ওরফে সালমান ত্রিপুরার বাড়ি লক্ষ্য করে এলোপাতাড়ি গুলি ছুড়ে। এ সময় প্রবীণ ত্রিপুরা ওরফে সালমান বাড়িতে না থাকলেও বাড়িতে তার স্ত্রী এবং ছয় জন এমএন লারমা সমর্থিত জেএসএস এর কর্মী রাত্রিযাপন করছিলেন। এলোপাতাড়ি ব্রাশ ফায়ারে ঘরে অবস্থান নেয়া লোকজন মাটিতে শুয়ে আত্মরক্ষা করেন।

এ ব্যাপারে প্রবীণ ত্রিপুরা ওরফে সালমান এর স্ত্রী চিন মালা ত্রিপুরা (৪০) জানান, ঘরের একটি কক্ষে আমি ও আমার ছেলে বিশ্বজিৎ ত্রিপুরা (১২) এবং আমার মা কে নিয়ে থাকি। রাত দেড়টায় গুলির শব্দে খুবই আতঙ্কিত হয়ে পড়ি। ঘরের বেড়া হাফ দেয়াল থাকায় জীবনে রক্ষা পেয়েছি।

এ ব্যাপারে এমএন লারমা সমর্থিত জেএসএস কমিটির দীঘিনালা উপজেলা শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক এবং বোয়ালখালী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান চয়ন বিকাশ চাকমা এঘটনায় সন্তু লারমা সমর্থিত জেএসএস কে দায়ী করে বলেন, সালমানের ঘরে আমাদের ছয়জন কর্মী রাতযাপন করছিলেন। তিনি এভাবে হামলার তীব্র নিন্দা জানিয়ে ঘটনায় জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান।

এ ব্যাপারে দীঘিনালা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) উত্তম চন্দ্র দেব ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, ঘটনাস্থল থেকে ৫৯টি গুলির খোসা উদ্ধার করা হয়েছে।

তিনি আরো জানান ঘটনার তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।