পানামা পেপার্স : আপাতত টিকে গেলেন নওয়াজ

সুপ্রভাত ডেস্ক

পানামা পেপার্স কেলেঙ্কারিতে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফকে অপসারণ করার মত পর্যাপ্ত প্রমাণ না পাওয়ার কথা জানিয়ে তার পরিবারের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ তদন্তে একটি যৌথ কমিশন গঠনের নির্দেশ দিয়েছে দেশটির সর্বোচ্চ আদালত। খবর বিডিনিউজ।
পাকিস্তানজুড়ে টান টান উত্তেজনা আর আন্তর্জাতিক পর্যায়ে আলোচনার মধ্যে পাকিস্তান সুপ্রিম কোর্টের পাঁচ সদস্যের বেঞ্চ বৃহস্পতিবার এই আদেশ দেয় বলে রয়টার্সের খবর।
দেশটির প্রতিরক্ষা মন্ত্রী খাজা আসিফের বরাত দিয়ে ডনের খবরে বলা হয়, পাঁচ সদস্যের বেঞ্চ সংখ্যাগরিষ্ঠের মতামতের ভিত্তিতে এই আদেশ দেয়।
খাজা আসিফ আদালতের বাইরে সাংবাদিকদের জানান, “আদালত বলেছে, এ বিষয়ে তদন্তের জন্য একটি কমিশন করতে হবে।”
গত বছর পানামা পেপার্সে প্রকাশিত লাখ লাখ গোপন নথিতে বিশ্বব্যাপী রাজনৈতিক নেতা ও শীর্ষ ব্যবসায়ীদের গোপন সম্পদের তথ্য ফাঁস হয়ে যায়।
পানামার ল ফার্ম মোসাক ফনসেকার ফাঁস হওয়া সাড়ে ১১ লাখ নথির মধ্যে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীর মেয়ে মরিয়ম এবং ছেলে হাসান ও হুসেইন নওয়াজের নামে আটটি অফশোর কোম্পানি থাকার তথ্য আসে।
এসব তথ্য ফাঁস হওয়ার পর নওয়াজ শরিফের পরিবারের সম্পদ, অফশোর হোল্ডিংস ও ব্যাণিজ্যিক স্বার্থ নিয়ে পাকিস্তানজুড়ে ব্যাপক রাজনৈতিক বিতর্ক দেখা দেয়।
বিরোধীদলগুলো প্রধানমন্ত্রীর পরিবারের বিরুদ্ধে তদন্তের দাবিতে বিক্ষোভ-সমাবেশ করে এবং নওয়াজের পদত্যাগ দাবি করে।
প্রধানমন্ত্রী নওয়াজের সম্ভাব্য রাজনৈতিক উত্তরাধিকারী মরিয়ম নওয়াজ ফাঁস হওয়া নথির তথ্য প্রত্যাখ্যান করে সেগুলো জাল বলে দাবি করলেও বিরোধীদলগুলোর দাবির মুখে বিচার বিভাগীয় তদন্তের নির্দেশ দিতে বাধ্য হন স্বয়ং প্রধানমন্ত্রী।