আইসিসি’র ডেপুটি চেয়ারম্যান হচ্ছেন সৌরভ গাঙ্গুলি

0
77

সুপ্রভাত ক্রীড়া ডেস্ক :
সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের মুকুটে আরও একটি পালক যোগ হওয়ার সম্ভাবনা তৈরি হচ্ছে। দেশের সর্বকালের অন্যতম সেরা অধিনায়ক, সফল কুইজমাস্টার, রাজ্য ক্রিকেট সংস্থার প্রশাসনিক প্রধান, ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের প্রেসিডেন্টের পরে এ বার ক্রিকেটের নিয়ামক সংস্থা আইসিসিতে ডেপুটি চেয়ারম্যান পদে বসানোর কথা হচ্ছে তাকে। আইসিসি সূত্রে এমনই ইঙ্গিত মিলেছে শুক্রবার।
দীপাবলির সময়েই এ নিয়ে সুসংবাদ পেতে পারেন দাদা-ভক্তরা। ভারতের শশাঙ্ক মনোহর ছিলেন শেষ আইসিসি চেয়ারম্যান। তার জায়গায় নতুন আইসিসি প্রধান আসবেন। অনেকেই চেয়েছিলেন, সৌরভ বসুন মনোহরের খালি করা চেয়ারম্যানের চেয়ারে। গ্রেম স্মিথ, ডেভিড গাওয়ারের মতো প্রাক্তন ক্রিকেটারেরা পর্যন্ত বলেছিলেন, কোভিড-১৯ অতিমারির এই কঠিন সময়ে বিশ্বের ক্রিকেট প্রশাসনকে পথ দেখাতে সৌরভের মতো কাউকেই চাই। সমস্যা হচ্ছে, সৌরভকে আইসিসি চেয়ারম্যানের পদ গ্রহণ করতে হলে বোর্ড প্রেসিডেন্টের চেয়ার ছাড়তে হবে। যেটা তিনি এখনই করতে নারাজ।
দুবাইয়ের আইসিসি সদর দফতর মারফত খবর, নিয়ামক সংস্থার কর্তারা চাইছেন, সৌরভকে অন্য কোনও গুরুত্বপূর্ণ পদে বসিয়ে আইসিসি প্রশাসনে যুক্ত করতে। যাতে বোর্ডের পদ না ছেড়েও তিনি আসতে পারেন। তাই কেউ কেউ প্রস্তাব দেন, প্রাক্তন ভারত অধিনায়ককে আইসিসির ডেপুটি চেয়ারম্যান করা হোক। চেয়ারম্যান হতে গেলে সৌরভকে বোর্ডের পদ ছাড়তে হবে কিন্তু ডেপুটি চেয়ারম্যান হওয়ার ক্ষেত্রে সে রকম কোনও শর্ত নেই। এক প্রভাবশালী আইসিসি কর্তা আনন্দবাজারকে বললেন, ‘সৌরভের মতো কেউ ডেপুটি চেয়ারম্যান হলে আইসিসি প্রশাসনের হাতই শক্ত হবে। বিশেষ করে এমন একটা কঠিন পরিস্থিতিতে, যখন সারা বিশ্বেই অনিশ্চয়তা আর উদ্বেগের আবহ।’ তিনি যোগ করলেন, ‘সৌরভ এলে কিন্তু ডেপুটি চেয়ারম্যানের পদটাও অনেক গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠবে।’ করোনা অতিমারিতে বিরাট আর্থিক ক্ষতির মুখে পড়েছে সব খেলা। ক্রিকেটও ব্যতিক্রম নয়। অনেকেই চাইছে আইসিসিতে সক্রিয় ভাবে আসুক মহাশক্তিশালী ভারতীয় বোর্ড।
সংবাদমাধ্যমের একাংশে এন শ্রীনিবাসনের নাম শোনা যাচ্ছিল সম্ভাব্য আইসিসি প্রার্থী হিসেবে। কিন্তু শুক্রবার রাত পর্যন্ত যা খবর, তার কথা কেউ খুব একটা ভাবছেন না। আইসিসিতে ভারতীয় প্রতিনিধি হিসেবে এক নম্বর পছন্দ সৌরভ। চেয়ারম্যান হওয়ার দৌড়ে এগিয়ে ইংল্যান্ড ও নিউজিল্যান্ডের প্রতিনিধি। সৌরভ ভারতীয় বোর্ডের পদ ছাড়তে রাজি হলে ফেভারিট হিসেবে উঠে আসতে পারতেন।
ওদিকে, সুপ্রিম কোর্টে বোর্ড আবেদন করেছে সৌরভ, জয় শাহের মেয়াদ বাড়ানোর জন্য। দেশের সর্বোচ্চ আদালত জানিয়েছে, পরে এই আবেদন শোনা হবে। তত দিন সৌরভেরাই বোর্ডের কাজ চালাচ্ছেন। আইসিসির গরিষ্ঠ অংশের প্রস্তাব, যদি প্রধান হিসেবে না-ও পাওয়া যায়, উপপ্রধান হয়েই আসুন সৌরভ। খবর : আনন্দবাজার’র।