মতবিনিময়কালে ডা. রবিউল : গ্রামঞ্চলে চিকিৎসার পরিধি বাড়ছে চক্ষুু হাসপাতালের

0
94

চট্টগ্রাম চক্ষু হাসপাতাল ও প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের সাথে সংসদ সদস্য মমতাজ বেগমের মতবিনিময় সভা বৃহস্পতিবার বেলা ১২টায় হাসপাতালের সেমিনার কক্ষে অনুষ্ঠিত হয়।
মানিকগঞ্জে কণ্ঠশিল্পী মমতাজ বেগমের চক্ষু হাসপাতালে সেবার মান উন্নত করতে অভিজ্ঞতা অর্জনে পাহাড়তলী চক্ষু হাসপাতালে পরিদর্শনে আসেন তিনি। এ সময় সভায় মিলিত হন।
মমতাজ বেগমকে হাসপাতাল প্রতিষ্ঠায় মেধা, অভিজ্ঞতা ও শ্রম এমনকি চিকিৎসাসেবার প্রয়োজনীয় দিকগুলো তুলে ধরেন চট্টগ্রাম চক্ষু হাসপাতালের ম্যানেজিং ট্রাস্টি অধ্যাপক ডা. রবিউল হোসেন।
সভায় মমতাজ বলেন, পাহাড়তলী চক্ষুু হাসপাতাল দেশের সীমা ছাড়িয়ে আন্তর্জাতিক পরিম-লে চক্ষুু চিকিৎসায় অনন্য ভূমিকা রাখছে। এ হাসপাতালের অভিজ্ঞতা নিয়ে হাসপাতালের সেবায় যুগান্তকারী পরিবর্তন আনতে। বিশ্বব্যাপী এ হাসপাতালের সুনাম যেমন শুনেছি, আজ বিভিন্ন বিভাগ পরিদর্শনে মুগ্ধ হয়েছি।
তিনি বলেন, এক সময় বাবার চোখের সমস্যায় চিকিৎসকের শরাণাপন্ন হলে ছানি অপারেশনের নির্দেশ দেন। সেই থেকে চক্ষু হাসপাতাল করার পরিকল্পনার অংশ হিসেবে মানিকগঞ্জে ‘মমতাজ চক্ষু হাসপাতাল’ প্রতিষ্ঠা করি।
সভায় উপ-মহাদেশের চক্ষু বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক ডা. রবিউল হোসেন মমতাজ বেগমকে চক্ষু হাসপাতালের মনোগ্রাম খচিত ক্রেস্ট তুলে দেন।
এ সময় অধ্যাপক ডা. রবিউল হোসেন সব ধরনের সহযোগিতার আশ্বাস দিয়ে বলেন, মানসম্পন্ন চক্ষুসেবা প্রদান এমনকি চক্ষু চিকিৎসায় প্রশিক্ষিত মানবসম্পদ উন্নয়ন ও একটি উৎকৃষ্ট চক্ষু চিকিৎসা কেন্দ্র পরিণত করাই হচ্ছে অন্যতম লক্ষ্য। এখানে উন্নত মানের প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা রয়েছে। শুধু বাংলাদেশ নয় বিশ্বের বিভিন্ন দেশের চিকিৎসকরা প্রশিক্ষণ নিতে এ হাসপাতালে ছুটে আসেন। এখান থেকে উন্নত প্রশিক্ষণ নিয়ে নিজ নিজ দেশে চিকিৎসাসেবা দিয়ে যাচ্ছে।
ইমপেরিয়াল হাসপাতালের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. রবিউল হোসেন বলেন, এখনো দেশে বিশাল জনগোষ্ঠী চক্ষু চিকিৎসাসেবা থেকে বঞ্চিত। বিগত তিন যুগেরও উপরে নগর থেকে গ্রামঞ্চলে মানসম্মত উন্নত চক্ষু চিকিৎসাসেবার পরিধি বৃদ্ধিতে চট্টগ্রাম চক্ষু হাসপাতাল নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে।
বক্তব্য রাখেন, জ্যেষ্ঠ কনসালটেন্ট ডা. মুরতুজা নুরউদ্দিন, কনসালটেন্ট রাজীব হোসেন, সহকারী ব্যবস্থাপক (মেডিক্যাল ও প্রোগ্রাম) তাপস চৌধুরী প্রমুখ।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন, হাসপাতালের উপ-ব্যবস্থাপক (প্রশাসন) মো. রুকনুন চৌধুরী, সহকারী ব্যবস্থাপক (প্রশাসন) সাজিউল ইসলাম, হাসপাতালের জনসংযোগ কর্মকর্তা শহীদ ফারুকী, মিডিয়া স্পেশালিস্ট বিশ্বজিৎ পালসহ বিভিন্ন কর্মকর্তাবৃন্দ। বিজ্ঞপ্তি