করোনার যে লক্ষণগুলো খুব পরিচিত

0
168

সুপ্রভাত ডেস্ক :

কভিড-১৯ বিভিন্ন ধরনের লক্ষণ সৃষ্টি করতে পারে। তবে যুক্তরাষ্ট্রের সেন্টারস ফর ডিজিজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশন (সিডিসি) পরিচালিত নতুন একটি বিশ্লেষণে দেখা গেছে, বেশির ভাগ রোগীর মধ্যে তিনটি লক্ষণের মধ্যে অন্তত একটির উপস্থিতি দেখা গেছে জ্বর, কাশি বা শ্বাসকষ্ট।

গত বৃহস্পতিবার সিডিসির উপসর্গ ও মৃত্যুহার নিয়ে সাপ্তাহিক প্রতিবেদনে এ বিশ্লেষণ প্রকাশিত হয়েছে। কভিড-১৯ আক্রান্ত ১৬৪ জনের ওপর এটি পরিচালিত হয়েছে। রোগীদের সবার মধ্যে লক্ষণ ছিল এবং তারা ১৪ জানুয়ারি থেকে ৪ এপ্রিলের মধ্যে অসুস্থ ছিল।

কভিড-১৯ যেহেতু নতুন রোগ, সেহেতু লক্ষণগুলো সম্পর্কে তথ্য সীমাবদ্ধ ছিল, বিশেষত যারা হাসপাতালে ভর্তি হয়নি। তাই সিডিসি স্থানীয় স্বাস্থ্যনেতাদের মাধ্যমে চিহ্নিত রোগীদের ওপর এ সমীক্ষা পরিচালনা করেছিল। রোগীদের বিভিন্ন ধরনের লক্ষণ সম্পর্কে জানাতে বলা হয়েছিল এবং এমন কোনো অতিরিক্ত লক্ষণ সম্পর্কেও জানাতে বলা হয়েছিল, যা ব্যাপকভাবে স্বীকৃত ছিল না।

এই রোগীদের মধ্যে প্রায় ৯৬ শতাংশের মধ্যে জ্বর, কাশি বা শ্বাসকষ্ট ছিল এবং প্রায় ৪৫ শতাংশ রোগীদের মধ্যে তিনটি লক্ষণই দেখা গিয়েছিল। তবে সবচেয়ে সাধারণ লক্ষণ ছিল কাশি, জরিপে অংশগ্রহণকারী ৮৪ শতাংশ রোগী জানিয়েছে, তাদের কাশি হয়েছে। জ্বর ছিল দ্বিতীয় সবচেয়ে সাধারণ লক্ষণ, ৮০ শতাংশ রোগীর জ্বর হয়েছে বলে তারা জানিয়েছে। আর হাসপাতালে ভর্তি রোগীদের মধ্যেই শ্বাসকষ্ট বেশি দেখা যায়।

এছাড়া রোগীরা পেশি ব্যথা, ঠাণ্ডা লাগা, অবসাদ, মাথাব্যথাসহ অন্যান্য বিভিন্ন উপসর্গের কথা জানিয়েছে। প্রায় অর্ধেক রোগীর পেটের সমস্যা, বেশির ভাগ সাধারণ ডায়রিয়া হয়েছিল। কিছু রোগী পেট ব্যথা, বমি হওয়া ও বমি বমি ভাব হওয়ার কথা জানিয়েছে। এছাড়া হাসপাতালে যেতে হয়নি এমন অনেক রোগী তাদের স্বাদ ও গন্ধের ধারণা হারিয়ে ফেলেছিল।