প্রিমিয়ারে ‘অপরচুনিটিস ফর ইঞ্জিনিয়ার্স’ শীর্ষক ওয়েবিনার অনুষ্ঠিত

0
41
ওয়েবিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপক জনি শাহিনুর আলম

 

সম্প্রতি প্রিমিয়ার ইউনিভার্সিটির ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগে আয়োজন করা হয়েছে অপরচুনিটিস ফর ইঞ্জিনিয়ার্সওয়েবিনার। বিভাগের চেয়ারম্যান টোটন চন্দ্র মল্লিকের সভাপতিত্বে ওয়েবিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন বিশ্ববিখ্যাত ইলেকট্রনিক প্রোডাক্ট-এর প্রতিষ্ঠান এরিকসনের টেকনিক্যাল সলিউশন অ্যান্ড প্রোগ্রাম ডিরেক্টর জনি শাহিনুর আলম। বিশেষ অতিথি ছিলেন প্রিমিয়ার ইউনিভার্সিটির প্রকৌশল ও বিজ্ঞান অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. তৌফিক সাঈদ।

হার্বার্ড ও এমআইটির এলামনি জনি শাহিনুর আলম তার মূল প্রবন্ধে বলেন, ভবিষ্যৎ-বিশ্বে প্রকৌশলীদের জন্য অনেক সুযোগ রয়েছে। তাদের জন্য রয়েছে চাকরি ও উচ্চশিক্ষার সুযোগ। শিক্ষার্থীদের আসলে ঠিক করে ফেলতে হবে, গ্র্যাজুয়েশনের পর পর তারা কি চাকরি করতে যাবে, নাকি উচ্চশিক্ষার জন্য প্রস্তুতি নিবে? যারা দেশে কিংবা বিদেশে চাকরি করতে চায় তাদের উচিত হবে, গ্র্যাজুয়েশন-এর পাশাপাশি কিছু শর্টকোর্স করে নিজের দক্ষতাকে বাড়িয়ে নেওয়া।

এ সময় তিনি কোর্স এরা এবং ঊডেমির কথা উল্লেখ করে বলেন, এই মহামারির সময় এই দুইটি সাইট অনেকগুলো কোর্স ফ্রিতে অফার করছে। তাই সহজেই এখন ছাত্রছাত্রিরা এইসব শর্টকোর্স করতে পারবে।

বিশেষ অতিথি প্রফেসর ড. তৌফিক সাঈদ বলেন, আমাদের যে-সকল শিক্ষার্থী দেশের বাইরে উচ্চশিক্ষা গ্রহণ করতে চায়, তাদের উচিত শিক্ষাজীবনের শেষদিক থেকেই তার প্রস্তুতি নেওয়া। কোন বিশ্ববিদ্যালয়ে যাবে, কোন বিষয়ে পড়ালেখা করবে তার একটা টার্গেট ঠিক করা। সময়মত জিআরই, আইএলটিএস-এর প্রস্তুতি নেওয়া। আমরা সবসময় দেখি শিক্ষার্থীরা এইসব প্রস্তুতি নিতে গিয়ে অনেক সময় নষ্ট করে। তাই বিদেশে পড়তে গেলে একদম সময় নষ্ট না করে প্রথম দিন থেকেই সেই পথে এগিয়ে যেতে হবে।

বিভাগের সহকারী অধ্যাপক সাইফুদ্দীন মুন্নার সঞ্চালনায় ওয়েবিনারে সভাপতির বক্তব্যে টোটন চন্দ্র মল্লিক বলেন, আজকের প্রযুক্তির উৎকর্ষের দুনিয়ায় সবচেয়ে মূল্যবান বিষয় হচ্ছে তথ্য বা ইনফরমেশন। চাকুরি সুবিধা ও উচ্চশিক্ষার জন্য স্কলারশিপ সুবিধার সর্বোচ্চ ব্যবহার করতে তথ্য সংগ্রহের কোনো বিকল্প  নেই। আমি ব্যক্তিগতভাবে মনে করি, ফেসবুকের তুলনায় ক্যারিয়ার বিষয়ক তথ্য লিনকিডইন (www.linkedin.com)-এ  বেশি পাওয়া যায়। তবে বাংলাদেশে এটির জনপ্রিয়তা অনেক কম। আমার মনে হয়, এই লাইভের দর্শকরা ফেসবুকের তুলনায় লিনকিডইন-এ বেশি তথ্য খুঁজবে। আমরা একটু খেয়াল করলে দেখব, এই তথ্যই আমাদের খুব সাহায্য করছে মহামারী মোকাবেলায়।

ফেসবুক লাইভ ও জুমে অনুষ্ঠিত হওয়া এই ওয়েবিনারে প্রশ্ন করার সুযোগ ছিল সকল শিক্ষার্থীর জন্য। প্রিমিয়ার ইউনিভার্সিটির বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষক/শিক্ষিকা ও শিক্ষার্থীসহ মোট ১৫০ জন অংশগ্রহণ করেন।

আগামীকাল ১৪ জুলাই ড্রোন ও  রোবটিক্স  ডেভেপলমেন্টশীর্ষক ওয়েবিনার অনুষ্ঠিত হবে। বিজ্ঞপ্তি