বাঁশখালীতে সনদ ও এনআইডি জালিয়তিতে জড়িত ৪ জন গ্রেফতার, ৫টি কম্পিউটার জব্দ

0
75

জড়িত সমাজসেবার ৩ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে হবে বিভাগীয় মামলা

সংবাদদাতা, বাঁশখালী :

বাঁশখালী উপজেলা সদরের ৭টি কম্পিউটার দোকানে উপজেলা প্রশাসন অভিযান চালিয়ে ৪ কম্পিউটার অপারেটরকে গ্রেফতার করেছে এবং ৫টি কম্পিউটার জব্দ করেছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) অফিসের পেশকার দেবাশীষ দাশ বাদি হয়ে ৫ জন অপারেটরের বিরম্নদ্ধে মামলা করেছেন। এদের মধ্যে মো. সাহাব উদ্দিন নামের এক অপারেটর পলাতক রয়েছে। বাঁশখালী থানায় তাদের বিরম্নদ্ধে অভিযোগ তারা বিভিন্ন ব্যক্তির কাছ থেকে টাকা নিয়ে ভুয়া এনআইডি, ভুয়া খতিয়ান এবং বিভিন্ন পাবলিক পরীড়্গা ও জন্ম নিবন্ধনের ভুয়া সনদ  তৈরি করে প্রতারণা করত। গ্রেফতারকৃতরা হচ্ছেন কম্পিউটার অপারেটর মো. আজিম, মো. বেলাল, জসিম উদ্দিন, জালাল উদ্দিন। তাদের ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদে তারা প্রশাসনের কাছে জানিয়েছেন উপজেলা সমাজসেবা কার্যালয়ের কর্মকর্তা ইউনিয়ন সমাজকর্মী দেলোয়ার হোসেন, মিলকী প্রভা দত্ত ও কারিগরী প্রশিড়্গক জ্যোতি ধরের অনুরোধে এসব কাজ করতেন। এজন্য তারা টাকাও দিতেন।

উপজেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, গত বুধবার দুপুরে ৭টি কম্পিউটার দোকানে অভিযান পরিচালনা করলে ওই সময় ৩টি দোকান নিরাপরাধ প্রমাণিত হয়। বাকী ৪টি দোকান থেকে ৫টি কম্পিউটার ও ৪ ব্যক্তিকে আটক করে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়ে নিয়ে আসা হয়। রাত সাড়ে ১০ টা পর্যনত্ম আটকদের জিজ্ঞাসাবাদ ও জব্দ কম্পিউটারগুলোতে নানা তথ্য-উপাত্ত অনুসন্ধান করে নানামুখি জালিয়তির প্রমাণ পান অভিযানকারীদল। অভিযানে ছিলেন উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) মো. আতিকুর রহমান, উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মুহাম্মদ ফয়সল আলম, উপজেলা সহকারি শিড়্গা কর্মকর্তা আবু সুফিয়ান ও থানা পুলিশ। তবে থানায় দায়ের করা মামলায় উপজেলা সমাজসেবা কার্যালয়ের জড়িত ৩ কর্মকর্তাকে মামলা আসামি করা হয়নি। তাদের বিরম্নদ্ধে বিভাগীয় মামলা দায়েরে সংশিস্নষ্ট দপ্তরে প্রতিবেদন প্রেরণ করা হবে।

বাঁশখালী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোমেনা আক্তার বলেন, ‘ ভুয়া এনআইডি ও ভুয়া সনদের বিষয়টি তদনত্ম চলছে। বিভিন্ন দোকানের কম্পিউটার অপারেটরের বিরম্নদ্ধে থানায় মামলা হয়েছে, সমাজসেবা কার্যালয়ের জড়িতদের বিরম্নদ্ধে আটককরা ব্যক্তিদের স্বীকারোক্তিমূলক প্রতিবেদন সংশিস্নষ্ট দপ্তরে পাঠিয়ে দেয়া হবে। পরে তাদের বিভাগীয় মামলা হবে।’

বাঁশখালী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি তদনত্ম) বলেন, ‘দোষীদের বিরম্নদ্ধে মামলা দায়ের করেছেন উপজেলা ভূমি অফিসের পেশকার দেবাশিষ দাশ।’

উলেস্নখ্য, সম্প্রতি বাঁশখালী পৌরসভার নতুন করে সংযোজিত ১০৯ জন বয়স্ক ভাতার তালিকায় ৩৯ জনের এনআইডি কার্ডে জালিয়তি করার বিষয়টি ধরা পড়ায় এই অভিযান পরিচালনা করা হয়।’