কুটুমবাড়িসহ তিন প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা

0
144
নগরীতে বৃহস্পতিবার জেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান

স্বাস্থ্যবিধি লঙ্ঘন, লাইসেন্সবিহীন খাদ্য উৎপাদন #

নিজস্ব প্রতিবেদক :
স্বাস্থবিধি লঙ্ঘন, লাইসেন্সবিহীন খাদ্য সামগ্রী উৎপাদন ও সংরক্ষণের জেরে চট্টগ্রামের তিনটি রেস্তোরাঁকে ৯০ হাজার টাকা জরিমানা গুনতে হয়েছে।
বৃহস্পতিবার (৯ জুলাই) দুপুরে ওয়াসা মোড় এলাকায় পৃথক একটি রেস্তোরাঁ ও দুটি বেকারিতে একযোগে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান চলে। জেলা প্রশাসনের পক্ষে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. আলী হাসান অভিযানের নেতৃত্ব দেন।
ম্যাজিস্ট্রেট মো. আলী হাসান সুপ্রভাতকে বলেন, কুটুমবাড়ি রেস্তোরাঁয় ব্যবস্থপনা থেকে শুরু করে কোনো কর্মচারী কোনো প্রকার মাস্ক, হ্যান্ডগ্লাভস সুরক্ষাসামগ্রী ছাড়াই কাজ করছেন। প্রতিষ্ঠানটির ফ্রিজে অপরিছন্ন উপায়ে মাছ, মাংসের সাথে আটার খামি ও অন্যান্য মশলা জাতীয় দ্রব্যাদি সংরক্ষণ করা হচ্ছে।

এছাড়াও নিজস্ব উৎপাদিত ফিরনিতেও নেই উৎপাদনের ও মেয়াদত্তোর্ণ তারিখ। প্রতিষ্ঠানকে ৪০ হাজার টাকা অর্থদ-ের পাশাপাশি সতর্ক করে দেওয়া হয়।
একই এলাকায় কুপার’স বেকারিতে বিএসটিআই এর মিল্ক ব্রেড এর লাইসেন্স না থাকা সত্ত্বেও মিল্ক ব্রেড উৎপাদন ও বাজারজাতকরণ করছে। এমনকি বিএসটিআই এর লোগো-৩৮৩ যা বিস্কুটের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য সেটিকে কাজে লাগিয়ে কেক বিক্রি করছে। এমন অভিযোগে প্রতিষ্ঠানকে ২৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।
এছাড়া পাশ্ববর্তী ডুলছে বেকারিতে একটি মাত্র বিস্কুটের বিএসটিআই লাইসেন্স কাজে লাগিয়ে কয়েকপ্রকার বিস্কুট উৎপাদন ও বাজারজাত করছে। এক্ষেত্রে প্রতিটি বিস্কুটের জন্য বিএমটিআইয়ের আলাদা আলাদা লাইসেন্সের প্রয়োজন হয়। এমন অভিযোগে প্রতিষ্ঠানকে ২৫ হাজার টাকা জরিমানা গুনতে হয়েছে। অভিযানে বিএসটিআইয়ের ফিল্ড অফিসার (ইন্সপেকটর) মো. শহিদুল ইসলামসহ পুলিশ উপস্থিত ছিল।