ঈদে আসছে ‘তিন দৈত্য’

0
110

সুপ্রভাত ডেস্ক :
আসন্ন ঈদে ছোট্ট সোনামণিদের জন্যে দেশের শীর্ষ প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান ক্রাউন এন্টারটেইনমেন্টের প্রযোজনায় সাত পর্বের বিশেষ ধারাবাহিক ‘তিন দৈত্য’ প্রচারিত হবে এশিয়ান টেলিভিশনে। এতে বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন আনিসুর রহমান মিলন, বড়দা মিঠু, ফারুক আহমেদ, মাজনুন মিজান, তারেক স্বপন, জামিল হোসেন, ঊর্মিলা শ্রাবন্তী কর, নিলা ইসলাম, সুচনা শিকদার, পাবেল ও রানা মল্লিক।
এরই মাঝে নাটকটি নিয়ে ব্যাপক আগ্রহের সৃষ্টি হয়েছে। অনেকেই বলছেন এটা হতে যাচ্ছে আলিফ লায়লা সিরিয়ালের চাইতেও অনেক বেশী আকর্ষণীয়, কারণ এটি বাংলাদেশে নির্মিত এবং এই ধারাবাহিকে দৈত্য আছে তিনটি।
দুর্দান্ত হাসির এই ধারাবাহিকটি মূলত ক্রাউন এন্টারটেইনমেন্টের পরবর্তী হাজার পর্বের মেগা সিরিয়াল ‘তিন দৈত্য’ ফিরে এলো এর সিকুয়েল। ঈদের পরপরই মেগা ধারাবাহিকটির নির্মাণ শুরু হবে।
এ প্রসঙ্গে জনপ্রিয় নির্মাতা আদি বাসি মিজান বলেন, হাজার পর্বের মেগা সিরিয়াল আগে নির্মিত হলেও দেশে তিন দৈত্যের মত সিরিজ এবারই প্রথম। এত বিশাল একটা প্রজেক্ট সামলানোর জন্যে প্রয়োজন ছিলো বড় প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানের। আমি এরই মাঝে ক্রাউন প্রযোজিত অনেকগুলো কাজ করেছি এবং এদের আর্থিক লেনদেন খুবই ভালো। তাছাড়া, ক্রাউন এন্টারটেইনমেন্ট কর্তৃপক্ষ কখনোই নির্মাতাদের স্বাধীনতায় হস্তক্ষেপ করে না। তারা কাস্টিং নির্বাচনে অকারণে খবরদারী করে না। এমনকি ক্যুটিং ইউনিটেও কাজ ছাড়া আসেই না। এটা এই সময়ে সত্যই বিরল।
এছাড়া ক্রাউন এন্টারটেইনমেন্টের পরিকল্পনা বিশাল। তারা এরই মাঝে বাংলাদেশের মিডিয়ার আস্থার প্রতীক হয়ে উঠেছে। এ কারণেই আমি সব সময়ই বলি, ক্রাউন উদাহরণ হতে এসেছে।
তিনি বলেন, তিন দৈত্য মেগা সিরিয়াল নির্মাণে আমরা অত্যাধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহারের পাশাপাশি দেশের বাইরেও একাধিক দেশে দৃশ্যায়ন করতে যাচ্ছি। এটা একটি বড় বাজেটের প্রজেক্ট। নিঃসন্দেহে এর জনপ্রিয়তাও হবে অনেক। সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে অক্টোবর থেকে তিন দৈত্য সম্প্রচারে যাবে।
প্রসঙ্গত, আগামী ঈদে আদি বাসি মিজানের পরিচালনায় সর্বাধিক সংখ্যক সাত পর্বের বিশেষ ধারাবাহিকের পাশাপাশি অনেকগুলো এক পর্বের বিশেষ নাটক প্রচারিত হবে। এগুলোর অধিকাংশই ক্রাউন এন্টারটেইনমেন্ট প্রযোজিত।
খবর : ডেইলিবাংলাদেশ’র।