চীনের সামরিক মহড়া দক্ষিণ চীন সাগর অঞ্চলকে ‘ফের অস্থিতিশীল’ করে তুলবে : পেন্টাগন

0
86

সুপ্রভাত ডেস্ক :

পেন্টাগন বৃহস্পতিবার জানিয়েছে, তারা দক্ষিণ চীন সাগরে একটি বিতর্কিত দ্বীপপুঞ্জ এলাকার জলসীমায় চীনের সামরিক মহড়ার ব্যাপারে উদ্বিগ্ন। তারা বলেছে, বেইজিংয়ের এমন পদক্ষেপ এ অঞ্চলকে ‘ফের অস্থিতিশীল’ করে তুলবে। খবর এএফপি’র।
পেন্টাগনের এক বিবৃতিতে বলা হয়, ‘১ থেকে ৫ জুলাই পর্যন্ত দক্ষিণ চীন সাগরে প্যারাসেল দ্বীপপুঞ্জ এলাকায় পিপলস রিপাবলিক অব চায়নার (পিআরসি) সামরিক মহড়া চালানোর সিদ্ধান্তের ব্যাপারে প্রতিরক্ষা বিভাগ উদ্বিগ্ন।’
এতে বলা হয়, চীন, ভিয়েতনাম ও তাইওয়ানের দাবি করা এ এলাকায় এমন কার্যক্রম ‘পরিস্থিতি আরো অস্থিতিশীল’ করে তুলবে।
জটিলতা বা বিতর্ক সৃষ্টি করতে পারে এবং শান্তি ও স্থিতিশীলতার ব্যাঘাত ঘটাতে পারে এমন কর্মকান্ড এড়াতে দক্ষিণ চীন সাগরের ব্যাপারে ২০০২ সালের ডিক্লারেশন অন দি কন্ডাক্ট অব পার্টিজ অনুযায়ী সেখানে এ ধরনের সামরিক মহড়া বেইজিংয়ের প্রতিশ্রুতিরও লঙ্ঘন।
অ্যাসোসিয়েশন অব সাউথইস্ট এশিয়ান ন্যাশনস’র দেশগুলোর স্বাক্ষর করা ওই ঘোষণাপত্রে বলা হয়, জটিলতা বা বিতর্ক সৃষ্টি করতে বা শান্তি ও স্থিতিশীলতার ব্যাঘাত ঘটাতে পারে সকল পক্ষ এমন কর্মকান্ড এড়িয়ে চলবে।
এ সামরিক মহড়া আইন বিরুদ্ধ জনসীমা দাবি জোরালো করার ক্ষেত্রে চীনের সর্বশেষ দীর্ঘ পদক্ষেপ।
প্যারাসেল দ্বীপপুঞ্জসহ দক্ষিণ চীন সাগরের বেইজিংয়ের ভূখন্ডগত দাবি ওয়াশিংটন প্রত্যাখান করে আসছে।
এ সাগর অঞ্চলে মূল্যবান তেল ও গ্যাস মজুদ রয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।
মহামারি করোনা ভাইরাস বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়া প্রশ্নে যুক্তরাষ্ট্র ও চীনের মধ্যে উত্তেজনা বৃদ্ধির প্রেক্ষাপটে চীন এ সামরিক মহড়া চালাচ্ছে। চীনের উহান নগরীতে ভাইরাসটি ছড়িয়ে পড়ার প্রাথমিক পর্যায়ে তথ্য গোপন করায় ওয়াশিংটন বেইজিংকে দায়ী করে।