অস্কারে আমন্ত্রিত হৃতিক-আলিয়া

0
58

 

সুপ্রভাত ডেস্ক :

একঝলক টাটকা অক্সিজেন পেল বলিউড। করোনা সংক্রমণ, সুশান্ত সিংহ রাজপুতের মৃত্যু, স্বজনপোষণ বিতর্ক পেরিয়ে অস্কারের আমন্ত্রণ এল বলিপাড়ায়। এই দুর্দিনে। অস্কার ২০২০ বা দ্য অ্যাকাডেমি অব মোশন পিকচার্স আর্টস অ্যান্ড সায়েন্স বিশ্বের ৮১৯ জন তারকাকে আমন্ত্রণ জানিয়েছে। সেই তালিকায় জ্বলজ্বল করছে এক ঝাঁক বলিউডি সেলেবের নাম।

কারা রয়েছেন আমন্ত্রিতের তালিকায়? অভিনয় দুনিয়া থেকে হৃতিক রোশন, আলিয়া ভাট ছাড়াও এই আমন্ত্রণে সামিল কাস্টিং ডিরেক্টর নন্দিনী শ্রীকান্ত, কস্টিউম ডিজাইনার নীতা লুল্লা, ছোট ছবির পরিচালক, নিস্তা জৈন, অমিত মধেশিয়া, ভিজুয়াল এফেক্ট সুপারভাইজার বিশাল আনন্দ, সন্দীপ কমল-সহ আরও অনেকেই। আলিয়া অবশ্য গত বছরও আমন্ত্রণ পেয়েছিলেন ‘গাল্লি বয়’-তে অভিনয়ের সুবাদে। যদিও জোয়া আখতারের এই ছবি মনোনয়নের প্রথম পর্বেই ছিটকে গিয়েছিল।

প্রসঙ্গত, প্রতি বছর অস্কারের আয়োজন করে অ্যাকাডেমি অফ মোশন পিকচার আর্টস অ্যান্ড সায়েন্সেস। আমন্ত্রিতরা আমন্ত্রণ গ্রহণের পরে অস্কারের ভোটাধিকার পাবেন।

২০২০-র অস্কার অ্যাকাডেমি আরও একটি কারণে গুরুত্বপূর্ণ। চলতি বছরে নারী প্রতিনিধিত্বের সংখ্যা দ্বিগুণ করার লক্ষ্য নিয়েছে এই পুরস্কার মঞ্চ। সেই অনুযায়ী এ বছর পুরস্কার বাছাই এবং ভোটাধিকারে যারা ডাক পেয়েছেন তাদের ৪৫ শতাংশই নারী। ২০১৬-য় শুরু হওয়া #অস্কারসোহাইট বিতর্ককে সামনে রেখেই এই লক্ষ্যপূরণ, সে কথা বলা বাহুল্য। আরও খবর, ২০২০-র অস্কারে থাকছেন ৭৫ জন মনোনীত প্রার্থী, ১৫ জন পুরষ্কার বিজয়ী, প্রযুক্তি বিভাগে পুরস্কৃত ৫ জন বিজেতা।

বলিউড ছাড়া বিশ্বের সমস্ত শিল্প ক্ষেত্র যেমন অভিনয় থেকে শুরু করে পোশাক ডিজাইনারদের নামও আমন্ত্রিতের তালিকায় রাখা হয়েছে। বলিউডের হৃতিক, আলিয়া ছাড়া হলিউড থেকে আমন্ত্রিত হয়েছেন আনা দে আরমাস, ব্রায়ান টাইরি হেনরি, ফ্লোরেন্স পুগ, লেকেথ স্ট্যানফিল্ড, বেনি ফিল্ডস্টেইন এবং কনস্ট্যান্স ইউ। পরিচালকদের মধ্যে রয়েছেন লুলু ওয়াং, অ্যারি আস্টার, টেরেন্স ডেভিস এবং ম্যাথু ভন।

এ বারের অস্কার নিয়ে অ্যাকাডেমির প্রেসিডেন্ট ডেভিড রুবিন এক বিবৃতিতে জানান, ‘আমরা খুশি, করোনা আবহেও পুরস্কার মঞ্চ আয়োজন করার সুযোগ পেয়ে। বড়, ছোট ছবি থেকে শিল্পের সমস্ত দিক হয়ে বিজ্ঞানের আঙিনার সমস্ত সেরা আরও এক বার আমাদের মঞ্চ আলোকিত করবেন। সারা বিশ্বের চলচ্চিত্র যাতে আরও সমৃদ্ধ হতে পারে এটাই অ্যাকাডেমির লক্ষ্য।’